সোমবার-২৫শে মে, ২০২০ ইং-১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৪১, English Version
করোনা মুক্তিতে বিশেষ মোনাজাত একমাস পর বিশ্বজুড়ে ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজারের নিচে নামলো করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা বায়তুল মোকাররমে ঈদের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত ঈদের সকালে ঝড়ে লণ্ডভণ্ড লানমানিরহাটের অর্ধশত ঘরবাড়ি এ বছরের ঈদটি অনেক কঠিন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী যশোরে নেই ঈদের আমেজ জলঢাকায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ সম্পন্ন

আক্রান্ত ৪৮ লাখ, মৃত তিন লাখ ১৬ হাজার

প্রকাশ: সোমবার, ১৮ মে, ২০২০ , ১০:১০ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : আন্তর্জাতিক,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস তাণ্ডব চালাচ্ছে গোটা বিশ্বে। ইতোমধ্যে কয়েকটি দেশে ভয়ঙ্কর আকার ধারণে করেছে করোনা। সোমবার সকাল পর্যন্ত করোনায় বিশ্বব্যাপী নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ১৬ হাজার ৬৭১ জনে এবং আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ লাখ ১ হাজার ৮৭৫ জন। অপরদিকে ১৮ লাখ ৫৮ হাজার ১৭০ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

অন্যদিকে রোববার একদিনে বিশ্বে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ২৫৭ জন, মৃত্যু হয়েছে ৩৬১৮ জনের। এছাড়া একদিনে বিশ্বে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৪৭ হাজারের বেশি করোনা রোগী। এ তথ্য জানিয়েছে করোনাভাইরাস নিয়ে লাইভ আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে এই মহামারি শুরু হলেও এখন ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ আকার নিয়েছে। আক্রান্ত ও নিহতের সংখ্যায় সবার ওপরে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ২৭ হাজার ৬৬৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৯০ হাজার ৯৭৮ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৩৮৯ জন।

আক্রান্তের দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে চলে এসেছে রাশিয়া। সেখানে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৮১ হাজার ৭৫২ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৬৩১ জন। স্পেনে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৭৭ হাজার ৭১৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৬৫০ জনের।

মৃত্যুর দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রিটেন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ৩৪ হাজার ৬৩৬ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ৬৯৫ জন। এছাড়া ইতালিতে নিহত হয়েছেন ৩১ হাজার ৯০৮ জন।

চীনের উহান থেকে বিস্তার শুরু করে গত চার মাসে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। চীনে করোনার প্রভাব কমলেও বিশ্বের অন্য কয়েকটি দেশে মহামারি রূপ নিয়েছে।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নেয়া হয়েছে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ। অধিকাংশ দেশেই মানুষের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করতে মানুষের চলাফেরার ওপর বিভিন্ন মাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। কোনো কোনো দেশে আরোপ করা হয়েছে সম্পূর্ণ লকডাউন, কোথাও কোথাও আংশিকভাবে চলছে মানুষের দৈনন্দিন কার্যক্রম। এ ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন এলাকার প্রায় অর্ধেক মানুষ চলাফেরার ক্ষেত্রে কোনো না কোনো মাত্রায় নিষেধাজ্ঞার ওপর পড়েছেন।

তবে এরই মধ্যে কোনো কোনো দেশে করোনার প্রভাব কমে যাওয়া লকডাউন শিথিল ও নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। নিউমোনিয়ার মত লক্ষণ নিয়ে নতুন এ রোগ ছড়াতে দেখে চীনা কর্তৃপক্ষ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সতর্ক করে। এরপর ১১ জানুয়ারি প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

Facebook Comments

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ