সোমবার-৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,-সকাল ৬:১৫

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

৭১১জন শিক্ষক কর্মচারি এমপিও ভুক্তির আবেদন ত্রুটি সমস্যা দেখিয়ে তালিকা প্রকাশ করল কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর।শিক্ষক কর্মচারিদের মাঝে ক্ষোভ সৈয়দপুরে কুকুরের কামড়ে ৬ জন হাসপাতালে বিরামপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন  শিবগঞ্জে নানা আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস উদ্যাপন লালপুরে আ’লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশে দেশিও পণ্যের সঠিক প্রদর্শন করতে হবে : শিল্পমন্ত্রী ‘সোনার বাংলা’ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন মোদি

আট সাধারণ অভ্যাস জটিল ক্যান্সারের কারণ

প্রকাশ: রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ , ১২:২১ অপরাহ্ণ , বিভাগ :
মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  কথায় আছে, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। কিন্তু এই স্বাস্থ্য ভালো রাখাটাই অনেক সময় কঠিন হয়ে পড়ে। আমরা নিত্যদিন এমন কিছু সাধারণ ভুল কাজ করি যা আমাদের দেহে কঠিন রোগের সৃষ্টি করে। যেমন- ক্যান্সার। যা মৃত্যুও ঘটায়।   ভারতের জীবনধারা ও স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৪ সালের হিসাবে বিশ্বে ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৪.৫ মিলিয়নের কাছাকাছি এবং ২০২৪ সালে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ মিলিয়ন হতে পারে।

যেসব সাধারণ অভ্যাসে ক্যান্সার হতে পারে তা আমাদের সবারই জানা জরুরি। এবং সেই অভ্যাসগুলো আমাদের পরিহার করা উচিত। আসুন, যে অভ্যাসগুলো আমাদের স্বাস্থ্যের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে এবং ঝুঁকি বাড়ায়, সেগুলো সম্পর্কে জেনে নিই-

গাড়ির ধোঁয়া

যেসব মানুষ সব সময় গাড়ির ধোঁয়ার সংস্পর্শে থাকেন, (যেমন—গাড়িচালক, মেরামতকারী ইত্যাদি) তাদের ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। ডিজেল ও পেট্রল বিষাক্ত কার্বন-মনোক্সাইড ও হাইড্রোকার্বন ছড়ায়।

পোড়া খাবার গ্রহণ

গ্রিল ফুড আইটেম, যেমন- মাছ, মুরগি ও মাংস; সেগুলো হালকা পোড়ানো হয় এবং সে কারণে হালকা কালচেভাব আসে। এসব খাবার আপনাকে স্মোকি ফ্লেভার দিলেও এতে থাকা হেটেরোসাইক্লিক অ্যামাইনস এবং পলিসাইক্লিক অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বনস পাকস্থলি, মলাশয় ও অগ্ন্যাশয়ের ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

ডায়েট সোডা পান

সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, বেশ কিছু সোডায় উচ্চমাত্রায় ৪-মিথাইলিমিডাজোল (৪-এমআই) রয়েছে, যা অ্যানিমেল কার্সিনোজেন হিসেবে পরিচিত। ডায়েট সোডায় কৃত্রিম মিষ্টদ্রব্য থাকে, যা অগ্ন্যাশয়সহ বিভিন্ন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। কিছু গবেষণা বলছে, ডায়েট সোডার কারণে মূত্রাশয় ও মস্তিষ্কে টিউমার হতে পারে।

অতিরিক্ত মদ্যপান

অতিরিক্ত মদ্যপান ক্যান্সার রোগের কারণ। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, দিনে দুবার অ্যালকোহল গ্রহণ খাদ্যনালির ক্যান্সার, কোলন ক্যান্সার, রেকটাম ক্যান্সার ও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। পাকস্থলিতে অ্যাসিড সৃষ্টি করে অ্যালকোহল এবং গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সমস্যার জন্য দায়ী।

এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার

এয়ার ফ্রেশনার বা বায়ুসুগন্ধী অন্যতম হোম-কেয়ার পণ্য, যা বহু কাল ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এই বায়ুসুগন্ধী কোনোভাবেই বাতাসের মান বাড়ায় না, শুধু গন্ধ ছড়ায় এবং পরিচ্ছন্নতার মিথ্যা অনুভূতি জাগায়। এতে থাকা উপাদান ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

সানস্ক্রিন ব্যবহার

ত্বকের ক্যান্সারের সুরক্ষায় ও ত্বককে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষায় অধিকাংশ মানুষ সানস্ক্রিন ব্যবহার করে। কিন্তু সানস্ক্রিনে রয়েছে জিঙ্ক অক্সাইড নামক এক উপাদান, যা ফ্রি রেডিক্যালস উৎপাদনে সহায়তা করে এবং ডিএনএর ক্ষতি করতে পারে। এতে ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি হতে পারে।

সুগন্ধযুক্ত মোমবাতি ব্যবহার

সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, প্যারাফিন মোমবাতি থেকে যে ধোঁয়া বেরোয়, তাতে কার্সিনোজেনসহ বিভিন্ন ফসিল ফুয়েল উপাদান থাকে। অতিরিক্ত প্যারাফিন মোমবাতি ব্যবহার করলে তা আপনার জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। রাত

জেগে কাজ

রাত জেগে কাজ করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়তে পারে। ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, দীর্ঘ রাত জেগে কাজ করলে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।

জেনে রাখা দরকার, এক গ্লাস কোক বা স্বল্প পরিমাণে পোড়া খাবার গ্রহণে ক্যান্সারের ঝুঁকি থাকে না, তবে নিয়মিত এবং লাগাতার গ্রহণের অভ্যাসে সার্বিক স্বাস্থ্যের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে।

ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার জন্য কিছু সাধারণ অভ্যাস রয়েছে। ধূমপান, অতিরিক্ত স্থূলতা, অস্বাস্থ্যকার খাদ্যাভ্যাস, কম ফলমূল ও শাকসবজি গ্রহণ, শরীরচর্চার অভাব, অতিরিক্ত মদ্যপান, বায়ুদূষণ হত্যাদি ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

Facebook Comments

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ