শনিবার-৩০শে মে, ২০২০ ইং-১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৯:৪৪, English Version
কাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব খুলছে এসএসসির ফল মিলবে এক ঘণ্টা আগেই ছাতকে একই পরিবারের ৩ নারী করোনা আক্রান্ত ছাতকের ইছামতি বাজারে হাতধোয়ার পানির ট্যাংক স্থাপন ও মাস্ক বিতরণ ছাতকের সিরাজগঞ্জে জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া অাদিতমারীতে করোনা মুক্তদের অানুষ্টানিক বিদায় আদমদীঘিতে দোয়া মাহফিল ও দুস্থ্যদের মাঝে কাপড় বিতরণ

উহানে ১০ দিনে কোটি মানুষের করো টেস্ট হবে

প্রকাশ: বুধবার, ১৩ মে, ২০২০ , ৯:২৯ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : আন্তর্জাতিক,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : চীনে উহান শহরের কর্তৃপক্ষ শহরের সমস্ত বাসিন্দা অর্থাৎ এক কোটি দশ লক্ষ মানুষের করোনাভাইরাস পরীক্ষার পরিকল্পনা নিচ্ছে। তাও আবার মাত্র ১০ দিনে।

রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এ খবর দিয়ে বলেছে, পরিকল্পনা এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। তবে উহানের প্রত্যেকটি এলাকাকে বলা হয়েছে কীভাবে তারা এলাকার প্রতিটি মানুষকে দশদিনের মধ্যে পরীক্ষা করতে পারবে তার বিস্তারিত পরিকল্পনা জানাতে হবে।

উহানে নতুন করে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। গত সপ্তাহ শেষে সেখানে আবার নতুন করে ছয় রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর আগে, ৩ এপ্রিলের পর থেকে সেখানে কোন নতুন সংক্রমণের ঘটনা ধরা পড়েনি।

এগারো সপ্তাহ ধরে কঠোর লকডাউনে থাকার পর গত ৮ এপ্রিল ওই শহরের লকডাউন তুলে নেওয়া হয়। ফলে সেখানে জীবনযাত্রা আবার স্বাভাবিক হয়ে আসছতে শুরু করে। স্কুল খুলেছিল, দোকানপাট ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করেছিল। এমনকি গণপরিবহনও চালু করা হয়েছিল।

কিন্তু একটি আবাসিক ভবন এলাকা থেকে শুরু হয়ে একগুচ্ছ মানুষের মধ্যে আবার নতুন করে সংক্রমণ দেখা দেয়ায় শহরটিতে জনজীবন স্বাভাবিক হয়ে ওঠা এখন আবার নুতন করে ঝুঁকির মুখে পড়েছে।

দশ দিনের লড়াই

‘দ্য পেপার’ নামে সংবাদপত্রের এক রিপোর্টে সেখানকার অভ্যন্তরীন একটি নথিকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে শহরের প্রতিটি এলাকার প্রত্যেক মানুষকে দশদিনের মধ্যে পরীক্ষা করার পরিকল্পনা তৈরি করে তা মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যে পেশ করতে হবে।

প্রত্যেক এলাকায় বাসিন্দার সংখ্যা হিসাবে নিয়ে এবং ওই এলাকায় বর্তমানে সক্রিয়ভাবে সংক্রমণ ছড়ানোর ঘটনা ঘটেছে কি না তা বিবেচনায় নিয়ে তাদের নিজস্ব পরিকল্পনা তৈরি করতে বলা হয়েছে।

এই নথিতে এই পরীক্ষা পরিকল্পনার নাম দেয়া হয়েছে ‘দশ দিনের লড়াই’। এতে আরও বলা হয়েছে পরীক্ষার সময় বয়স্ক মানুষ এবং যারা গাদাগাদি করে এক আবাসস্থলে থাকে তাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে।

তবে গ্লোবাল টাইমস নামে এক সংবাদপত্র ঊর্ধ্বতন স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বলছে, গোটা শহরের প্রতিটি মানুষকে পরীক্ষা করা অসম্ভব এবং বিশাল ব্যয়সাপেক্ষ ব্যাপার।

উহান বিশ্ববিদ্যালয়ের ঝংনান হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটের পরিচালক পেং ঝিয়ং বলেন, শহরের গোটা জনগোষ্ঠিকে পরীক্ষা করার বদলে স্বাস্থ্যকর্মী, যারা ঝুঁকির মুখে এবং যারা কোন আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছে তাদের লক্ষ্য করে এই পরীক্ষা কার্যক্রম চালানো উচিত।

তবে উহান বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেকজন পরিচালক বলেছেন, উহানের জনগোষ্ঠির একটা বড় অংশকে (৩০ থেকে ৫০ লাখ মানুষ) ইতোমধ্যেই পরীক্ষা করা হয়ে গেছে। বাকি ৬০ থেকে ৮০ লাখ মানুষকে দশদিনের মধ্যে পরীক্ষা করার ‘সক্ষমতা’উহানের আছে।

চীনে গত মঙ্গলবার মাত্র একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এর আগের দিনও নতুন সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যা একই ছিল। তবে বুধবার সকাল থেকে এখন অবধি সাতজন আক্রান্ত হয়েছে বলে জানাচ্ছে ওয়ার্ল্ডোমিটার।

চীনে সবমিলিয়ে ৮২ হাজার ৯২৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। এ মারা গেছে ৪ হাজার ৬৩৩ জন।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

Facebook Comments

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ