সোমবার-২৫শে মে, ২০২০ ইং-১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১:৫৮, English Version
করোনা মুক্তিতে বিশেষ মোনাজাত একমাস পর বিশ্বজুড়ে ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজারের নিচে নামলো করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা বায়তুল মোকাররমে ঈদের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত ঈদের সকালে ঝড়ে লণ্ডভণ্ড লানমানিরহাটের অর্ধশত ঘরবাড়ি এ বছরের ঈদটি অনেক কঠিন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী যশোরে নেই ঈদের আমেজ জলঢাকায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ সম্পন্ন

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের ক্ষয়ক্ষতি দেখতে পশ্চিমবঙ্গে মোদি

প্রকাশ: শুক্রবার, ২২ মে, ২০২০ , ৩:৫৩ অপরাহ্ণ , বিভাগ : আন্তর্জাতিক,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে আজ শুক্রবার সকালে পশ্চিমবঙ্গে গেলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পশ্চিমবঙ্গের গভর্নর জগদীপ ধনখড় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে সঙ্গে নিয়ে রাজ্যের বিধ্বস্ত জেলাগুলোর পরিস্থিতি আকাশপথে পর্যবেক্ষণ করছেন তিনি। এর পর বসিরহাটে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন মোদি। সেখানে ধনখড় এবং মমতাকে সঙ্গে নিয়ে আম্পানের ঘটনায় বিভিন্ন জেলায় ক্ষয়ক্ষতির মূল্যায়ন করবেন তিনি। বৈঠকের পর ওড়িশায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাও পরিদর্শনে যাবেন মোদি। আজ শুক্রবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে কলকাতা বিমানবন্দরে নামে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমান। বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান পশ্চিমবঙ্গের গভর্নর এবং মুখ্যমন্ত্রী। ছিলেন বিজেপি নেতারাও।

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এদিন আকাশপথে রাজারহাট, গোসাবা, মিনাখাঁ, সন্দেশখালি এবং হিঙ্গলগঞ্জ পরিদর্শন করছেন তারা। এরপর বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে করে বসিরহাটের উদ্দেশে রওনা হবেন তারা। এর আগে বৃহস্পতিবার মমতা বলেছিলেন যে, ১৭৩৭ সালের পর এমন দুর্যোগ আর হয়নি। আম্পানের তাণ্ডবে রাজ্যে ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে কলকাতায় ১৯ জন এবং বিভিন্ন জেলায় ৬১ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া কলকাতা, দুই ২৪ পরগনাসহ রাজ্যের অন্তত ১৩টি জেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এরমধ্যে ৭-৮টি জেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং আরও ৪-৫টি জেলা বিপর্যস্ত। উত্তর ২৪ পরগনায় প্রশাসনিক কর্মকতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর দুপুর ১টার দিকে কলকাতা বিমানবন্দরের উদ্দেশে রওনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এর পর দুপুর দেড়টার দিকে দমদম বিমানবন্দরে পৌঁছনোর কথা মোদির। সেখান থেকে ওড়িশার ভুবনেশ্বরের দিকে রওনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এদিকে আম্পানে বিধ্বস্ত রাজ্যের ক্ষয়ক্ষতির মোকাবিলায় ইতোমধ্যেই এক হাজার কোটি রুপি বরাদ্দ দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। করোনা পরিস্থিতির কারণে এমনিতেই আর্থিক সঙ্কট চলছে রাজ্যে। এরই মধ্যে আম্পানের জেরে ক্ষয়ক্ষতি সামলাতে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আর্থিক সাহায্য চাইবে মমতা সরকার।

Facebook Comments

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ