1. recentnews19@gmail.com : News Desk :
  2. moinul129@gmail.com : mohin :
  3. editormuktinews24@gmail.com : Melon parvez : Melon parvez
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
জন্মের এতদিন পর মহাষ্টমীতে ছেলের নাম রাখলেন কোয়েল টস জিতে নাজমুলদের ব্যাট করাতে পাঠালেন মাহমুদুল্লাহ ভারতে করোনায় আরও ৫৭৮ জনের মৃত্যু পলাশবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নানার মৃত্যু, দুই নাতনি আহত ‘ভালোবাসার বার্তা নিয়ে এসেছি আমার সনাতন ধর্মালম্বী ভাই বোনদের জন্য’- ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। দূর্গাপুজা উপলক্ষে হিলি সীমান্তে মিষ্টি উপহার দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছে বিজিবি ও বিএসএফ কলাপাড়ায় ৩২০ একর জমি অধিগ্রহন নিয়ে এলাকাবাসীর সংবাদ সম্মেলন দলীয় পরিচয় অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না : কাদের মাস্ক ছাড়া সরকারি-বেসরকারি অফিসে মিলবে না সেবা দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সাংবাদিকদের কাজ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

পার্বতীপুরে উদ্ধার হওয়া তরুনীর লাশ রংপুর কারমাইকেল কলেজের ছাত্রী আদিবাসী রুখিয়া রাউত।

  • প্রকাশ : বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০, ৬.৫৬ পিএম
  • ৩৭৫ বার

 

এমএন২৪.কম ডেস্ক : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত পরিচয় তরুনী লাশের পরিচয় শনাক্ত করেছে পার্বতীপুর পুলিশ। আদিবাসী পল্লীতে বেড়ে উঠা রুখিয়া রাউত। সে রংপুর কারমাইকেল কলেজের ইতিহাস বিভাগের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্রী ছিল। তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় ১২ ঘন্টা পর পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশের চৌকস দল তার মৃত্যুর জন্য দায়ী কথিত প্রেমিকসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে ।
হত্যার মুল পরিকল্পনাকারী হিসেবে আনিছুর রহমান (২৮), অটোচালক রাজ মিয়া (২৫) ও আশিকুজ্জামান (৩২) কে আজ বুধবার ৭ অক্টোবর তাদের নিজ বাড়ি থেকে গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে। গত মঙ্গলবার ভোরে পার্বতীপুরের মধ্যপাড়া-রংপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশের জঙ্গল থেকে ওড়না দিয়ে হাত পা বাধা অবস্থায় অজ্ঞাত হিসেবে লাশটি উদ্ধার করা হয়। সে রংপুর কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের মিশনপাড়ার আদিবাসী দিনেশ রাউত এর মেয়ে। পরনে ছিল সালায়ার কামিজ। মুখের দাঁতগুলা ভাঙ্গে দেয় দুর্বত্তরা। রক্তাক্ত ও ক্ষত-বিক্ষত ছিল মুখ। দুর্বত্তরা নির্দয়ভাব হত্যার পর অটোচালিত গাড়ীতে করে সেখান লাশটি ফেলে যায়। পরে মধ্যপাড়া পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মঙ্গলবার বিকেলে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালর মর্গে পাঠায়।
নিহত মেয়ের বাবা দিনেশ রাউত বলেন, আমার মেয়েকে দুপুর সাড়ে ৪ টার সময় আনিছুর রহমান মোবাইল ফোন করে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে যায়। দীর্ঘদিন ধরে আমার মেয়ে রুখিয়া রাউতকে উক্ত্যক্ত করে আসছিল। বিকাল ৫ টায় আমার সঙ্গে আমার মেয়ের মোবাইল ফোনে কথা হয়েছে। আমার মেয়েকে পাশবিক নির্যাতন করে হত্যা করেছে। আমরা আদিবাসী বলে আমাদের উপর এ নির্যাতন করেছে আমি এর সঠিক বিচার চাই।
পার্বতীপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা বলেন লাশ সনাত্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অভিযান চালিয়ে গ্রেফতারের কথা ও কিছু আলামত সংগ্রহের কথা স্বীকার করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর
themesbazarmuktin141