সোমবার-৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,-ভোর ৫:৪৭

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

৭১১জন শিক্ষক কর্মচারি এমপিও ভুক্তির আবেদন ত্রুটি সমস্যা দেখিয়ে তালিকা প্রকাশ করল কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর।শিক্ষক কর্মচারিদের মাঝে ক্ষোভ সৈয়দপুরে কুকুরের কামড়ে ৬ জন হাসপাতালে বিরামপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন  শিবগঞ্জে নানা আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস উদ্যাপন লালপুরে আ’লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশে দেশিও পণ্যের সঠিক প্রদর্শন করতে হবে : শিল্পমন্ত্রী ‘সোনার বাংলা’ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন মোদি

পার্বতীপুরে মামলা করেও প্রতিকার পাচ্ছেন না ভূক্তভোগি ও তার পরিবার

প্রকাশ: শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ , ৯:৪১ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

আতাউর রহমান ঃ
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে প্রভাবশালী প্রতিপক্ষের বেআইনি হস্তক্ষেপে নিজেদের তিন একরের পুকুর, বাশঁঝাড় ও বসতবাড়ী হাত ছাড়া হওয়ার উপক্রম হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে মামলা করে এখনও প্রতিকার পাচ্ছেন না ভূক্তভোগি ও তার পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে, পার্বতীপুর উপজেলার মোমিনপুর ইউনিয়নের ইন্দ্রপুর গ্রামে।
ওই গ্রামের খোকাশাহ মোড়ের আব্দুস সালামের ছেলে ওমর ফারুক তার লিখিত অভিযোগে বলেন, উপজেলার মোমিনপুর ইউনিয়নের ইন্দ্রপুর মৌজায় তাদের (এএস খতিয়ান-২৩, ২৭৫ ও ২৭৩ নম্বর দাগ) ৩ দশমিক ১৪ একর জমির উপর বিশাল পুকুর, বাশঝাড়, মূল্যবান কাঠের বাগান ও বসতবাড়ী রয়েছে। দীর্ঘকাল ধরে তা ভোগদখল করে আসছেন। গত ২০২০ সালের ৭ অক্টোবর প্রতিপক্ষ পাশ^বর্তী চিরিরবন্দর উপজেলার নবিপুর গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে জয়নাল আবেদীন ও ইসলাম উদ্দীনের নেতৃত্বে একদল ভাড়াটে লোক লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দিনে দুপরে আব্দুর সালাম ও তাদের পরিবারের ভোগদখলে থাকা অর্ধ লক্ষাধিক টাকার মূল্যবান কাঠ ও বাশঁ জোরপূর্বক কেটে নিয়ে যায়। এছাড়া চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারী সকালে ওমর ফারুক ও তার লোকজন পুকুরে মাছ ধরতে গেলে প্রতিপক্ষের লোকজন বাধা দিতে এলে উভয়পক্ষের মধ্যে মারপিট ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় ওমর ফারুক ও তার বাবা আব্দুস সালাম বাদী হয়ে ২০২০ সালের ১২ অক্টোবর পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি ও ২০২১ সালের ২ ফেব্রুয়ারী দিনাজপুর আমলী আদালত-৫ এ আরও একটি মামলা দায়ের করে। এ ঘটনার পর থেকে প্রতিপক্ষের লোকজন আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। বর্তমানে ওমর ফারুক ও তার পরিবারের লোকজন জমির ভোগদখলে পদে পদে বাধা ও হুমকির শিকার হচ্ছেন। এ ব্যাপারে দীর্ঘদিন ধরে মহামান্য আদালত ও আইন শৃংখলা বাহিনীর কাছে ন্যায় বিচারের আশায় অধীর প্রতিক্ষায় দিন কাটাচ্ছেন বলে ভূক্তভোগি ওমর ফারুক ও তার পরিবার জানিয়েছেন।

Facebook Comments

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ