মঙ্গলবার-১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,-রাত ৮:৪৬

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

বরিশাল বিভাগের ৩১টি নৌপথের নাব্যতা বৃদ্ধি করে টেকসই ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলা হবে        — নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী পৌর নির্বাচনের প্রচারে মাঠে নেমেছে কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবুর রহমানের ইন্তেকালে তথ্যমন্ত্রীর শোক সংস্কৃতিচর্চা বৃদ্ধি নতুন প্রজন্মকে জঙ্গিবাদ থেকে দূরে রাখবে -তথ্যমন্ত্রী নতুন পরিচয়ে পরীমনি বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবুর রহমান দিলুর মৃত্যুতে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর শোক লালপুরে ঘনকুয়াশা ও তীব্র শীতে বিপর্যস্ত জনজীবন

পিতৃকালীন ছুটি নিয়ে কোহলিকে কটাক্ষ গাভাসকরের, খোঁচা দিলেন অনুষ্কাকেও

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২০ , ১:২৩ অপরাহ্ণ , বিভাগ :
এমএন২৪.কম ডেস্ক : বিতর্ক আর সমালোচনায় জর্জরিত বিরাট কোহলি। একেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে লজ্জার হারের পর তাঁর নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তার উপর পিতৃকালীন ছুটি নেওয়ায় লাগাতার কটাক্ষের শিকার তিনি। এবার দেশের দায়িত্ব ছেড়ে কোহলির বাড়ি ফেরা নিয়ে খোঁচা দিলেন সুনীল গাভাসকর। এমনকী, ঘুরিয়ে অনুষ্কাকেও কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না। আগামী বছর জানুয়ারি মাসে প্রথমবার বাবা হতে চলেছেন কোহলি। সেই কারণেই অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝেই দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের কাছে আগেই অনুরোধ জানিয়ে রেখেছিলেন। সেই মতো মেলে অনুমতি। বোর্ডের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, অজি দলের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট খেলেই ফিরে আসবেন অধিনায়ক। অনেকে কোহলির সিদ্ধান্তের প্রশংসা করলেও নেটিজেনদের বড় অংশ সমালোচনায় মুখর হয়। তুলনায় উঠে আসে মহেন্দ্র সিং ধোনির নামও। অনেকেই কটাক্ষের সুরে বলেন, জিভার জন্মের সময় কিন্তু ধোনি দেশের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে বাড়ি ফিরে যাননি। প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক কপিব দেবও সমালোচনার সুরেই বলেছিলেন, “আমাদের কালে এমনটা সম্ভব হত বলে মনে হয় না। সুনীল গাভাসকরও কয়েক মাস ছেলের মুখই দেখতে পায়নি।” অনেক ক্রিকেটপ্রেমী আবার সেই প্রসঙ্গেই বলেন, ১৯৭৫-৭৬ মরশুমে গাভাসকরও একই কারণে ছুটি চেয়েছিলেন। কিন্তু বিসিসিআই অনুমতি দেয়নি। এবার সেই গাভাসকরই গোটা বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন।

কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান একটি সংবাদমাধ্যমের কলামে লেখেন, যে তাঁকে ভারতীয় বোর্ড ছুটি দেয়নি, ব্যাপারটা সেরকম নয়। আসলে তিনি বিসিসিআইয়ের কাছে পিতৃকালীন ছুটি কখনওই চাননি। তাঁর কথায়, “প্রথমেই জানিয়ে রাখি, আমি সন্তান জন্মানোর সময় স্ত্রীর পাশে থাকব বলে বোর্ডের কাছে কোনও ছুটি চাইনি। দলের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাওয়ার সময়ই জানতাম, সেই সময়ই বাবা হব। কিন্তু দেশের দায়িত্বকেই বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলাম। আর আমার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছিল আমার বেটারহাফ। উৎসাহই দিয়েছিল।” এভাবেই যেন নাম না করে অনুষ্কা শর্মাকে খোঁচা দিলেন তিনি। এরপরই গাভাসকর জানান, কিউয়িদের বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্টে তিনি চোট পান। সেই সময় তাঁকে মাস খানেকের জন্য বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। আর তখনই বোর্ডের কাছে গাভাসকর নিজের খরচে দেশে ফেরার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। সঙ্গে এও বলেছিলেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টেই মাঠেও নামবেন। সম্পূর্ণ ফিট না হয়েও প্রথম টেস্ট খেলেছিলেন। এককথায় ব্যক্তিগত জীবনের থেকে যে দেশকেই বেশি প্রাধান্য দিয়েছিলেন, সেটাই স্পষ্ট করে দিলেন সানি। যে গুণ কোহলির মধ্যে খুঁজে পাচ্ছেন না ক্রিকেটপ্রেমীরা। উল্লেখ্য, এর আগে আইপিএল চলাকালীনও বিরাটের পারফরম্যান্সের সমালোচনা করতে গিয়ে অনুষ্কার নাম টানেন গাভাসকর। যার জল বহুদূর গড়ায়। ‘অশালীন’ মন্তব্যের অভিযোগ তুলে দেন খোদ অনুষ্কা। যদিও সেসব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছিলেন সানি। আর এবার না করেই বিরুষ্কার ‘আচরণ’কে তুলোধোনা করলেন কিংবদন্তি।

Facebook Comments

খেলাধূলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ