বুধবার-২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০-৮ আশ্বিন, ১৪২৭, সময়: দুপুর ১২:২৬, English Version
দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার সম্পাদকের জামিন এসএসসি পাসে নিয়োগ দেবে ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন সোনালী ও জনতা ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা ২ অক্টোবর সরকারের ঘোষিত ২১ প্রণোদনা প্যাকেজে যা থাকছে মধ্যপাড়া খনিতে তিন শিফটে পাথর উত্তোলন শুরু নৌকার বিজয় নিশ্চিতে ঐক্য ও কার্যক্রম জোরদারের আহ্বান রেজাউল করিমের মেট্রোরেলের সবকিছু ওলটপালট করে দিয়েছে করোনা : সেতুমন্ত্রী

১৭ তারিখ থেকেই কি চলবে যাত্রীবাহী ট্রেন?

প্রকাশ: সোমবার, ১১ মে, ২০২০ , ২:২৪ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

এমএন২৪.কম ডেস্ক : দেশে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা প্রতিদিনই উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। যার ফলে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শুর করে অফিস আদালত কয়েক দফায় বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। অন্যদিকে গত ২৫ মার্চ থেকে সারা দেশে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলও বন্ধ করে দেয়া হয়। তবে এবার মানুষকে সচেতন করে স্বাভাবিক কাজকর্ম ও জনজীবন সচল করার কথা ভাবছে সরকার। যার ফলে ঈদ সামনে রেখে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিংমল খুলে দিয়েছে সরকার।

এমনকি ঈদকে সামনে রেখে আগামী ১৭ মে থেকে সারা দেশে চালু হচ্ছে যাত্রীবাহী ট্রেন এমন গুঞ্জনও চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। এর মধ্যেই রেল স্টেশনের কিছু ছবি ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়।

সেই ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে, ট্রেন চালু হলে যাতে করে স্টেশনে আসা যাত্রীরা টিকিট কাটার জন্য তিন ফিট দূরত্ব অবস্থান করতে পারেন। সেজন্য গোল বৃত্ত করা হচ্ছে। জানা গেছে, সেই ছবিগুলো তোলা হয়েছে রাজশাহী রেল স্টেশন থেকে। সবার মনে এখন একটাই প্রশ্ন তাহলে কি করোনাভাইরাসের মধ্যে এবার ট্রেনও চালু করে দিচ্ছে সরকার।

এ ব্যাপারে রেলের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানিয়েছেন, যেকোন সময় ট্রেন চালু হতে পারে। এ কারণে প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। সরকারের নির্দেশনা পেলেই চলবে যাত্রীবাহী ট্রেন।

এ ব্যাপারে রাজশাহী রেলস্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার মো.আব্দুল করিম গণমাধ্যমকে বলেন, স্টেশনে আসা যাত্রীদের শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সেক্ষেত্রে যাত্রীরা কিভাবে টিকিট নিবেন, কিভাবে স্টেশনে ঢুকবে এগুলোর জন্য প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ঈদের আগে বা পরে যদি সীমিত আকারে ট্রেন চালানোর নির্দেশনা আসে তার জন্যই এমন প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হচ্ছে। পরিবহন বিভাগ থেকে আমাদের প্রস্তুত থাকতে এমন নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে ট্রেন চালানোর বিষয়ে এখন পর্যন্ত আমরা কোন সিদ্ধান্ত পাইনি।

এর আগে রেলওয়ে বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও-ঢাকা) মো. শওকত জামিল মোহসী স্বাক্ষরিত বিভিন্ন স্টেশনে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিশ্বব্যাপী নভেল করোনাভাইরাসের কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনের শর্তে ঈদুল ফিতরের আগে সীমিত পরিসরে ট্রেন চলাচলের অনুমতি আসতে পারে।

প্রসঙ্গত, করোনার সংক্রমণ রোধে গত ২৫ মার্চ সন্ধ্যা থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে মালবাহী ট্রেন চলাচল অব্যাহত ছিল। তাছাড়া কৃষকের পণ্য পরিবহনে গত ১ মে থেকে বিভিন্ন রুটে চলাচল করছে পার্সেল স্পেশাল ট্রেন।

Facebook Comments

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ