মঙ্গলবার-২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ১০:১৫

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

এনআইডি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু জিম্বাবুয়ে সফরের আগে বাংলাদেশের জন্য বড় দুঃসংবাদ ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের ঘোষণা প্রত্যাহার না হলে ‘হরতাল’ করোনার টিকাকে বিশ্বব্যাপী সাধারণ পণ্য ঘোষণার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর শিবগঞ্জে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে পন্ড হলো জুয়ার আসর  শেরপুরে আনসার ভিডিপির বৃক্ষরোপন উদ্বোধন এসএসসি-এইচএসসির বিষয়ে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: শিক্ষামন্ত্রী

ফুলবাড়ীতে ব্লাস্ট রোগে কৃষকের স্বপ্ন চিটা হয়ে যাচ্ছে

প্রকাশ: শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১ , ১২:১৭ অপরাহ্ণ , বিভাগ :
 

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ঃ
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে চিটা হয়ে যাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন। কয়েকদিন পরে ক্ষেতের ধান ঘরে তোলার স্বপ্ন দেখছিলেন উপজেলার কৃষকরা। ব্লাস্ট রোগের আক্রমনে কৃষকদের সে স্বপ্ন এখন হতাশায় রূপ নিয়েছে। দুর থেকে ক্ষেত দেখলে মনে হয় ধান পেকেছে। কিন্তু কাছে গেলে দেখা যায় শীষ শুকিয়ে চিটা হয়ে সোনালী রং ধারণ করার বাস্তব চিত্র। বৈরী আবহাওয়ার কারণে ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে শীষ শুকিয়ে যাওয়ায় হতাশ হয়ে পড়েছেন উপজেলার কৃষকরা। ফলে চলতি বোরো মৌসুমে ধানের উৎপাদন ল্যমাত্রা হ্রাস পাওয়ারও আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। তবে অধিক মাত্রায় নাইট্রোজেন সার ব্যবহার ও হঠাৎ করে বাতাসের আদ্রতা কমে দিনে গরম আর রাতে ঠান্ডা পড়ায় এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে বলে উপজেলা কৃষি অফিস দাবী করেছে।
উপজেলা কৃষি অফিস সুত্র জানায়, চলতি মৌসুমে উপজেলায় ৯ হাজার ৯৮৫ হেক্টর জমিতে বোরো চাষাবাদ হয়েছে। এরমধ্যে সাড়ে ৬ হাজার হেক্টর হাই-ব্রীড বাকীগুলো উফশী-২৮ ও ২৯ জাতসহ অন্যান্য ধান রয়েছে যেগুলোর প্রায় ৭০ ভাগ েেতর শীষ ইতিমধ্যে বেরিয়েছে। সঠিক সময়ে বীজ বপন, সার প্রয়োগ ও প্রথম দিকের আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবছর বোরোর বাম্পার ফলনের এবং উপজেলায় ৬৬ হাজার মেট্রিক টন ধান উৎপাদনের সম্ভাবনা ছিল।
কিন্তু চৈত্র মাসের শুরু থেকে দিনে গরম ও রাতে শীত পড়তে থাকে। যার কারনে ধান েেত হঠাৎ করে ব্লাস্ট রোগ দেখা দিয়ে উৎপাদনের ল্যমাত্রা অর্জিত না হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।
উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর, অনন্তপুর গ্রামের কৃষক আমজাদ হোসেন, হাসেম আলী , হানিফ উদ্দিন , আব্দুল করিম, জাহিদ মিয়া ,শরবেশ আলী ,জমির উদ্দিন, রফিকুল ইসলাম জানান, তাদের ধান ক্ষেত ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে শীষ শুকিয়ে গেছে। বার বার স্প্রে করেও কোন লাভ হচ্ছেনা। নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের গজেরকুটি গ্রামের কৃষক শফিকুল ইসলাম, পুর্ব ফুলমতি গ্রামের কৃষক জয়নুল হক, গোরকমন্ডল গ্রামের নুর ইসলাম জানান, হঠাৎ করে ধান ক্ষেতে ব্লাস্ট রোগ দেখা দেয়ায় তার কাঙ্খিত ফলন নিয়ে দুঃশ্চিতায় আছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার মাহাবুবুর রশিদ জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে অল্প কিছু ধান েেত হঠাৎ করে ব্লাস্ট রোগ দেখা দিয়েছে । কৃষকদের সচেতন করার জন্য পরামর্শ প্রদান ও লিফলেট বিতরণ কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে।


রাজশাহী,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_