মঙ্গলবার-২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-ভোর ৫:০৭

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ বেগমগঞ্জে র‌্যাবের হাতে হত্যা মামলার আসামি আটক ছাতক-গোবিন্দগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান নালিতাবাড়ীতে লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন  করোনায় রেকর্ড ২৪৭ মৃত্যু, শনাক্ত ১৫, ১৯২ সোমবার থেকে টিসিবির ট্রাকে চিনি-ডাল ৫৫, তেল ১০০ টাকায় যেসব লক্ষণে বুঝবেন আপনার ‘ডেঙ্গু’ হয়েছে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতের সহজ জয়

বান্দরবানের লামায় চাঞ্চল্যকর ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় উত্তম কুমার বড়ুয়া (৩৪) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি চম্পাতলী এলাকার প্রমোদ বড়ুয়ার ছেলে। পুলিশ জানায়, ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে উত্তম কুমারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিষয়ে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেও অনেক প্রমাণ পাওয়া গেছে, তাই তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে আরও অনেক তথ্য জানা যাবে। বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (লামা সার্কেল) রেজুয়ানুল ইসলাম বার্তাবাজারকে বলেন, ‘ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডের অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে এখন সব বলা যাচ্ছে না। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিস্তারিত জানা যাবে।’ প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (২১ মে ) সন্ধ্যায় লামা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চম্পাতলী এলাকার কুয়েত প্রবাসী নুর মোহাম্মদের ঘর থেকে মাসহ দুই মেয়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতরা হলেন- নুর মোহাম্মদের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৪০) বড় মেয়ে রাফি (১৩) ও ছোট মেয়ে নুরি (১০ মাস)। ঘটনার পরদিন শনিবার নিহতের মা লালমতি খাতুন বাদী হয়ে মামলা করেন। সেই ঘটনায় সন্দেহভাজন জিজ্ঞাসাবাদে নেওয়া নিহতের দেবর, বোনসহ ছয়জনকে জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রকাশ: বুধবার, ২৬ মে, ২০২১ , ২:২০ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: বান্দরবানের লামায় চাঞ্চল্যকর ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় উত্তম কুমার বড়ুয়া (৩৪) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি চম্পাতলী এলাকার প্রমোদ বড়ুয়ার ছেলে। পুলিশ জানায়, ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে উত্তম কুমারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিষয়ে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেও অনেক প্রমাণ পাওয়া গেছে, তাই তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে আরও অনেক তথ্য জানা যাবে।

বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (লামা সার্কেল) রেজুয়ানুল ইসলাম বার্তাবাজারকে বলেন, ‘ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডের অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে এখন সব বলা যাচ্ছে না। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিস্তারিত জানা যাবে।’ প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (২১ মে ) সন্ধ্যায় লামা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চম্পাতলী এলাকার কুয়েত প্রবাসী নুর মোহাম্মদের ঘর থেকে মাসহ দুই মেয়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতরা হলেন- নুর মোহাম্মদের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৪০) বড় মেয়ে রাফি (১৩) ও ছোট মেয়ে নুরি (১০ মাস)। ঘটনার পরদিন শনিবার নিহতের মা লালমতি খাতুন বাদী হয়ে মামলা করেন। সেই ঘটনায় সন্দেহভাজন জিজ্ঞাসাবাদে নেওয়া নিহতের দেবর, বোনসহ ছয়জনকে জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।


বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_