সোমবার-১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ১০:৩০

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

হাতিবান্ধায়বৃদ্ধের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার  কোয়ারেন্টাইন শেষে বাড়ি ফিরে ভারতফেরত দম্পতির করোনা শনাক্ত নতুন শিল্প সচিব হিসেবে যোগদান করেছেন জাকিয়া সুলতানা শেখ হাসিনার নাম চির ভাস্বর হয়ে থাকবে : ওবায়দুল কাদের মাথাপিছু আয় বাড়ল ১৬৩ ডলার নিজেদের তৈরি সুপার কম্পিউটার উন্মোচন করল ইরান আর্জেন্টিনা দলে ফিরলেন আগুয়েরো, জায়গা হয়নি দিবালার

শিবচর ট্রাজেডি নিহতের মধ্যে চারজনই মেন্দিগঞ্জের একজন নলছিটি উপজেলার 

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৪ মে, ২০২১ , ৭:০৯ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মনির মনির হোসেন বরিশাল : ঈদ উপলক্ষে দোকানের মালপত্র কিনতে প্রতিবছরই ঢাকায় যান বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জের ব্যবসায়ীরা। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। তবে এবার একদিনে চার ব্যবসায়ী ফিরেছেন লাশ হয়ে।মাদারীপুরের শিবগঞ্জ সংলগ্ন পদ্মা নদীতে সোমবার স্পিডবোট দুর্ঘটনায় নিহত হন মেহেন্দিগঞ্জের ওই চার ব্যবসায়ী।

তারা হলেন উপজেলার উলানিয়া পূর্বষট্টি গ্রামের কাপড় ব্যবসায়ী দুই ভাই সাইফুল হোসেন ও রিয়াজ হোসেন, একই এলাকার আরেক কাপড় ব‌্যবসায়ী সাইদুল ইসলাম এবং পাতারহাট বন্দরের মুদি ব‌্যবসায়ী মনির চাপরাসী।

তাদের মধ্যে সাইফুল হোসেন তিন মাস আগে বিয়ে করেছেন। আর দুই মেয়ের বাবা মনির ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব‌্যক্তি। রিয়াজেরও রয়েছে দুটি মেয়ে।
বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌপথের কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকায় সোমবার সকালে বাল্কহেডের ধাক্কায় ডুবে যায় যাত্রীবাহী স্পিডবোটটি। এতে তিন শিশুসহ নিহত হন ২৬ জন। দুর্ঘটনার পর স্পিডবোটের চালকসহ পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়

পাতারহাট বন্দরের ব্যবসায়ী সুমন ফরাজি জানান, ঈদ উপলক্ষে দোকানের মালপত্র কিনতে মেহেন্দিগঞ্জের পাতারহাট ও উলানিয়া বন্দরের অনেক ব্যবসায়ী ঢাকায় গিয়েছিলেন। দুর্ঘটনা কবলিত স্পিডবোটেই তাদের চার ব্যবসায়ী ছিলেন।
নিহত রিয়াজ ও সাইফুলের বড় ভাই আজাদ হোসেন জানান, তার দুই ভাই দোকানের মালপত্র কেনার জন্য ঢাকায় গিয়েছিলেন। ফেরার সময় তারা প্রথমে গাছবাহী ট্রলারে উঠেছিলেন পদ্মা পাড়ি দেয়ার জন্য। পুলিশ নামিয়ে দেয়ায় স্পিডবোটে চড়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান তার দুই ভাই।
তিনি আরও জানান, সকালে ফেসবুকে দুর্ঘটনার খবরে ভাইদের নাম দেখতে পান। পরে শিবচর থানা পুলিশ ফোন করে নিশ্চিত হন।
উলানিয়ার অন্য ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলামও তার ভাইদের সঙ্গে ঢাকায় গিয়েছিলেন বলে জানান আজাদ।
উলানিয়ার ইউপি সদস্য সৈয়দ আলী বলেন, শিবচরের দুর্ঘটনায় তার গ্রামেরই তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মাওয়া ঘাটে ঘটে যাওয়া স্পিডবোট দুর্ঘটনায় ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার মোল্লারহাট ইউনিয়নের রাজাবাড়িয়া গ্রামের নাসির সিকদার (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা এবং ব্যবসায়ীক মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তার আত্মীয় স্বজনরা জানান রমজান উপলক্ষ্যে এস এম নাসির উদ্দিন সিকদার ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ির লোকজনের সাথে দেখা করতে আসতে ছিলেন। ঘাট থেকে স্পিড বোর্ডে নদী পাড় হওয়ার সময় বালুর জাহাজের সাথে ধাক্কা লেগে দুর্ঘটনা ঘটে। এবং নাসির সিকদারসহ ২৬ জন মৃত্যু বরণ করেন। নাসির সিকদারের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে আনার জন্য তার আত্মীয়-স্বজন ও মোল্লারহাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কবির হোসেন এবং পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহম্মদ সিরাজুল ইসলাম সেলিম সহ মাওয়া ঘাটে যাচ্ছেন। মৃত এস এম নাসির উদ্দিন সিকদার মোল্লারহাট ইউনিয়নের রাজাবাড়িয়া গ্রামের আবদুল কুদ্দুস সিকদার’র ছেলে। তার মৃত্যুতে ঝালকাঠি-২ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু, নলছিটি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহম্মদ সিদ্দিকুর রহমান, মোল্লারহাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ মজিবুর রহমান মাষ্টার, মোল্লারহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কবির হোসেন হাওলাদার, মোল্লারহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী কে এম মাহবুবুর রহমান সেন্টু, নাচনমহল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহম্মদ সিরাজুল ইসলাম সেলিমসহ বিভিন্ন মহল গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।


বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_