বৃহস্পতিবার-২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ৯:২০

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার তালিকা প্রকাশ হেরেই চলেছে মোহামেডান যেকোনো সময় ‘শাটডাউন’ ঘোষণা : প্রতিমন্ত্রী ইউরোর শেষ ষোলোতে কে কার মুখোমুখি হচ্ছে? বিএসএফের বাধায় ফুলবাড়ী – নাগেশ্বরী সড়কের ৩শ মিটার এলাকার কাজ বন্ধ ঝিনাইগাতী হাতীবান্ধা ইউনিয়নে রাস্তার সিসি ঢালাই কাজের উদ্বোধন ঝিনাইগাতীতে ইউনিয়ন  পরিষদের রাস্তা বন্ধ করে বিল্ডিং নির্মানের  অভিযোগ : দাপ্তরিক কর্মকান্ড ব্যাহত 

বাউফলে অনলাইন গেমসে ঝুঁকে পড়ছে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশ: বুধবার, ৯ জুন, ২০২১ , ৬:০৭ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: বিশ্বে করোনার কারণে দেড় বছর ধরে সারা দেশের ন্যায় পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে বাউফলে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় স্মার্টফোনে অনলাইনভিত্তিক বিভিন্ন ধরনের গেমে আসক্ত হয়ে পড়েছে  অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা। এতে বাদ যায়নি কিশোররাও।

সরেজমিনে ঘুরে এবং বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে যানা যায় গেছে, প্রতিদিন সকাল তেকে শুরু করে সন্ধারাত পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা ও কিশোররা  রাস্তার মোড়ে, গাছের নীচে ,বাজার গলিতে ও ফাঁকা যায়গা দেখে দলবদ্ধ হয়ে বসে মোবাইলে লুডু,ফি-ফায়ার -ভিডিও গেমসগুলো খেলছে। এদের মধ্যে অধিকাংশই মোবাইলে অর্থের বিনিময় জুয়ায় আসক্ত হয়ে পড়েছে । বিশেষ করে, ফ্রি-ফায়ার বর্তমানে বাংলাদেশের সব চেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন গেমএবং এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে অনেক।এ কারনেই যুবক-কিশোররা এ গেমে বেশী আসক্তি হয়ে পড়েছে । বিভিন্ন ধরনের গেমের ভয়াবহতা এতই বেশী যে যুবক ও কিশোরদের মধ্যে এক প্রকার হিং¯্র ও অতিরিক্ত ক্ষিপ্রতা সৃষ্টি করে ।
কয়েকজন অভিভাবকদের সাথে আলাপ করলে তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এখন শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবই নিয়ে ব্যস্ত থাকার কথা । কিন্ত বিগত দিনে তারা বিদ্যালয় লেখাপাড়া ও খেলাধুলা নিয়ে ব্যস্ত থাকত। কিন্ত বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে শিক্ষার্থীরা ভিবিন্ন ধরনের গেমস নিয়ে ব্যস্ত থাকে। এ সব বিদেশী গেমস থেকে শিক্ষার্থীদেরকে ফিরিয়ে আনতে না পারলে সামনে জাতির জন্য বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।

এ বিষয় পটুয়াখালীর জেলা পরিষদের সদস্য হারুন অর –রশিদ বলেন, স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার কারনে এসব হিং¯্র গেম খেলার নেশায় আসক্ত হয়ে পরেছে শিক্ষার্থী ,কিশোর ও যুবকরা। এসব গেমে আসক্তির কারনে কিশোর –যুবকরা পারিবারিক ও সামাজিক অবস্থান থেকে বিচ্যুত হয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া থেকে অমনোযোগী হয়ে পরেছে।

বাউফল আদর্শ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সহকারি প্রধান শিক্ষক আব হানিফ বলেন,অনলাইন ক্লাশের জন্য অভিভাবকরা অ্যান্ড্রয়েড ফোন কিনে শিক্ষার্থীদের হাতে দেওয়ার ফলে এমন পরিস্থিতি হয়েছে । সরকার কিন্ত ভালো উদ্যোগ নিয়েছিল কিন্ত শিক্ষার্থীরা নিয়ন্ত্রণে না থেকে ভিবিন্ন গেমসে আসক্ত হচ্ছে। শিক্ষার্থীদেরকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনতে হলে অভিভাবক, সচেতন মহল, শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় নেতাদের এগিয়ে আসতে হবে। পাশাপাশি সরকারি ভাবে এ বেদেশী গেমস বন্ধ করতে হবে।
বাউফল সচেতন মহলের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে এনে মোবাইলে বিদেশী গেমস বন্ধ করে দেওয়া জন্য।

বাউফল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল মোতালেব হাওলাদার বলেন, অনলাইনে গেমসের ব্যাপারে গত ৩ জুন উপজেলা আইনশৃঙ্খলা সভায় আলোচনা হয়েছে। আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয়েছে সরকারি ভাবে যাতে গেমস বন্ধ করা হয়। সভার সিদ্ধান্তের চিঠি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হবে এবং পুলিশ প্রশাসনকে এব্যাপারে শিক্ষার্থীদেরকে সচেতন করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে।

বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেন প্রতিনিদিনের সংবাদকে বলেন, অভিভাবকদের সচেতন করতে হবে। তারা যেন এ বিষয় তাদের ছেলে মেয়েদের বেশী করে খেয়াল রাখেন। তিনি আরো বলেন, অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদেরকে সচেতন করার জন্য উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদেরকে বলে দিবেন।


করোনা ভাইরাস বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_