রবিবার-২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ১০:৩৩

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ সৈয়দপুর করোনা রোগীর মৃত্যু লালপুরে নতুন করে একদিনে আরো ৫৮ জন করোনায় আক্রান্ত! শিবগঞ্জে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রয় শুরু  ডোমারে খোলা বাজারে ওএমএস এর চাল ও আটা বিক্রয়ের শুভ উদ্বোধন। পার্বতীপুরে খোলা বাজারে চাল-আটা বিক্রি শুরু সংক্রমণ বাড়তে থাকলে হাসপাতালে জায়গা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে ওএমএস’র বিশেষ কার্যক্রম উদ্বোধন

বাড়ছে সংক্রমণ, হটস্পট উত্তর চট্টগ্রাম

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১ , ৬:০০ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: চট্টগ্রামে করোনার লাগাম টানা যাচ্ছে না। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা রোগী। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন আরও ২৪৭ জন। এর আগের চারদিন আক্রান্ত হয়েছিলেন যথাক্রমে, ১৩৬, ১৯০, ২২৬ ও ২৩৬ জন। চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত ৫৬ হাজার ৮৮০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৪৪ হাজার ৬২৭ জন নগরের ও ১২ হাজার ২৫৩ জন উপজেলা পর্যায়ের বাসিন্দা।

এদিকে করোনায় মৃত্যুর মিছিলও থামছে না। ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও এক করোনা রোগী। এর আগের দু’দিন যথাক্রমে ১ ও ৩ করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছিল। এখন পর্যন্ত করোনায় চট্টগ্রামে মারা গেছেন মোট ৬৬৬ জন। এর মধ্যে ৪৬৪ জন নগরের ও ২০২ জন উপজেলার বাসিন্দা।

সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি ১০টি ল্যাবে করোনার ১ হাজার ১৬২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৫৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ৮৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ৩৯৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় ৪৬ জন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ১০৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১৭০টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৩ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া যায়।

এছাড়া, ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাব ৯৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৮ জন, শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ১৫০টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৯ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৪ জন, জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ১৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৯ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে ১৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭ জন এবং পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে।এদিন এপিক হেলথ কেয়ার ল্যাবে কোনো নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। এছাড়া কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৮ নমুনা পরীক্ষা করে কারো শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।

করোনায় শঙ্কা বাড়ছে উত্তর চট্টগ্রামে। এখানকার উপজেলাগুলোতে দিন দিন বাড়ছে করোনা রোগী। একদিনেই দক্ষিণ চট্টগ্রামের তুলনায় ১৪ গুণ বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে উত্তর চট্টগ্রামে! গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তর চট্টগ্রামের সাত উপজেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১১৫ জনের। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা শনাক্ত হয় বুধবার থেকে লকডাউন শুরু হওয়া ফটিকছড়ি উপজেলায়। ফটিকছড়িতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৪ জনের!

অন্য ছয় উপজেলার মধ্যে হাটহাজারীতে ২০ জন, সীতাকুণ্ডে ১৬ জন, মিরসরাইয়ে ৮ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ১৬ জন, রাউজানে ২১ জন এবং সন্দ্বীপে ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

উত্তর চট্টগ্রামে যেখানে একদিনে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ১১৫ জন, দক্ষিণ চট্টগ্রামে সেই সংখ্যা মাত্র ৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাত উপজেলার মধ্যে চারটি উপজেলার নমুনা পরীক্ষা করে ৮ জনের শরীরে করোনা মিলেছে। এরমধ্যে লোহাগাড়ায় ১ জনের, পটিয়ায় ১ জনের, বোয়ালখালীতে ৫ জনের এবং সাতকানিয়ায় ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের উপজেলায় একজন করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে চট্টগ্রামের উপজেলাগুলোতে করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর সংখ্যা ২০২ জন। চট্টগ্রাম জেলায় সবমিলিয়ে মারা গেছেন ৬৬৬ জন করোনা রোগী। যার মধ্যে ২০২ জন উপজেলার বাসিন্দা।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামে গত বছরের ৩ এপ্রিল প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ৯ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম এক ব্যক্তি মারা যান।


করোনা ভাইরাস বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_