বৃহস্পতিবার-২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ১০:২৬

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ আড়াই কোটি টাকা ভ্যাট দিল ফেসবুক ১৮ বছর বয়সীদের টিকার নিবন্ধন ৮ আগস্ট থেকে বিধিনিষেধ: রাজধানীতে ৫৬৮ জন গ্রেফতার শ্রীমঙ্গলে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভাই বোনের মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে রাজাপুর গ্রাম থেকে গুইসাপ উদ্ধার, পরে বনে অবমুক্ত ডোমারের চিলাহাটি রেলষ্টেশন ট্রাইলে ভারতীয় ২টি পাওয়ার ইঞ্জিন। সুজানগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার টিকা গ্রহীতাদের উপচেপড়া ভীড়

র‌্যাব-এনএসআইর অভিযানে মূলহোতাসহ তিন প্রতারক গ্রেপ্তার

প্রকাশ: শনিবার, ১২ জুন, ২০২১ , ৬:৫৯ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: রাজধানীর কাফরুল এলাকা থেকে প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে র‌্যাব ও গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই-এর যৌথ অভিযানে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন শেখ হাবিবুর রহমান (৫৮), খলিলুর রহমান (৬২) ও আবু সাইদ (৫২)। তাদের কাছ থেকে ১৯৮ পিস ইয়াবা, পাচটি মোবাইল ফোন, প্রতারনার মাধ্যমে পেমেন্ট নেয়া বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি চেক, এক লাখ টাকা, এনআইডি কার্ডের ২৫টি ফটোকপিসহ প্রতারণার কাছে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে, শেখ হাবিবুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে সরকারের উচ্চ পদস্থ ব্যক্তিবর্গের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন মানুষের সাথে সুকৌশলে প্রতারনা করে আসছিল। প্রতারক শেখ হাবিবের এই সব অপকর্ম গোয়েন্দা সংস্থার নজরে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৪ এর সদস্যরা বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে দুইটার দিকে কাফরুল থানাধীন মিরপুর-১০ এর সেনপাড়া পর্বতা এসএসআই গ্রুপ এর অফিসে (৩য় তলায়) অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের মূল হোতা শেখ হাবিবুর রহমান (এসকে হাবিব) সহ তিন প্রতারককে গ্রেপ্তার করে।

হাবিবুর রহমানের বাড়ি বারিশালে, খলিলুর রহমানের বাড়ি মাদারীপুর ও আবু সাইদ এর বাড়ি চাদপুরে।

গ্রেপ্তারকৃত প্রতারক চক্রের সদস্যরা একই সাথে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের পরিচয় দিয়ে তাদের নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষের কাছে ভূয়া পরিচয় দিয়ে থাকে। মূলত এই প্রতারক চক্রের মূল হোতা শেখ হাবিবুর রহমান এসএসআই কর্পোরেশন নামে একটি সংস্থা খুলে চাকুরী দেওয়া, জমি উদ্ধার, ফ্ল্যাট উদ্ধার করার মতো কাজের কথা বলে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে আত্মসাত্ করে।

শেখ হাবিব সরকারের উচু মহলের আত্মীয় পরিচয়ে সম্প্রতি পুলিশের বিভিন্ন থানার ওসি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রধানকে তদবীর করেন। শেখ হাবিবের দ্বারা প্রতারিত অসংখ্য ভুক্তভোগী রয়েছে যারা এধরনের প্রতারনার শিকার হয়েছে। এসকে হাবিবের ছেলে শেখ ইমরান বাবার মতোই প্রতারনার কাজে জড়িত বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শেখ ইমরানের স্ত্রী শারমিন আক্তার এক সময় গণভবনে কর্মরত ছিলেন। শেখ ইমরানের সাথে তার বিয়ের পর স্বেচ্ছায় চাকুরী ছেড়ে দেয় এবং স্বামী ইমরান ও শ্বশুর শেখ হাবিবের সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের প্রতারণার সাথে শারমিনও জড়িয়ে যায়।


ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_