রবিবার-২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সন্ধ্যা ৭:০২

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ শিবগঞ্জে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রয় শুরু  ডোমারে খোলা বাজারে ওএমএস এর চাল ও আটা বিক্রয়ের শুভ উদ্বোধন। পার্বতীপুরে খোলা বাজারে চাল-আটা বিক্রি শুরু সংক্রমণ বাড়তে থাকলে হাসপাতালে জায়গা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে ওএমএস’র বিশেষ কার্যক্রম উদ্বোধন করোনার টিকা নিতে ১ কোটি সাড়ে ১৮ লাখ মানুষের নিবন্ধন টানা ৬ দিন বন্ধের পর আজ থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু

দ্রুত মেদ ঝরাবে ব্ল্যাক কফি

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১ , ৬:০৯ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: পুরো বিশ্বে এখনও করোনা মহামারির প্রভাব। এক কথায় বলতে গেলে থমকে আছে গোটা দুনিয়া। তার মধ্যে চলছে লকডাউন। এক প্রকার ঘর বন্দি জীবন, অফিস করতে হচ্ছে বাসা থেকেই। টানা বাসায় বসে অফিস করে শরীরে জমছে মেদ। যা শরীরের জন্য অন্তত খারাপ। এই পরিস্থিতিতে অতিরিক্ত মেদ না জমিয়ে কিভাবে ঝরানো যায় বা ওজন কমানো যায় তার চিন্তা মাথায় রাখতে হবে।

তবে আমাদের মধ্যে অনেকেরই সকালে ঘুম থেকে উঠে ব্ল্যাক কফি খাওয়ার অভ্যাস আছে। আবার অনেকেই দিনে কয়েকবার খান কফি। এই কফির সঙ্গে আরো একটি জিনিস মিশিয়ে খেলে ওজন কমবে দ্রুত।

কিন্তু অনেক বিশেষজ্ঞের দাবি, দুধ-চিনি মেশানো কফি বা ক্রিম মেশানো রাজকীয় কফি খেলে হতে পারে হিতে বিপরীত। তাই সঠিক নিয়মে কফি খেলে মেদ ঝরবে খুব দ্রুত। তাদের মতে, এই সব উপকরণে মেদ কমানো যাবে খুব সহজেই।

মেদ ঝরানোর জন্য এই কফি বানাবেন কিভাবে দেখে নিন এক নজরে।

প্রথমে পানি- ১/২ কাপ, ১ টেবিল চামচ কফি, ১ টেবিল চামচ জায়ফল গুঁড়ো, ১ টেবিল কোকো পাউডার, ১ টেবিল চামচ দারচিনির গুঁড়ো এবং ১ টেবিল চামচ নারকেল তেল।

যেভাবে বানাবেন- প্রথমে পানি ফুটিয়ে তাতে কফি মিশিয়ে নিন। এরপর এতে জায়ফল গুঁড়ো, কোকো পাউডার আর দারচিনির গুঁড়ো মেশান। এখন ভাল করে ব্লেন্ড করে নিন। সবার শেষে এতে ১ চামচ নারকেল তেল দিন। ব্যাস আপনার কফি তৈরি। এটি খেতে পারেন প্রতিদিন সকালে হাঁটতে যাওয়ার আগে বা শারীরিক কসরত করার আগে।

পৃথিবীর সেরা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট হিসাবে ধরা হয় কফিকে। আপনি যদি আপনার ত্বক ভাল ও উজ্জ্বল রাখত চান তাহলে প্রতিদিন এক কাপ কফি খান। এটি অত্যন্ত উপকারী অ্যাস্থমা, হৃদপেশী সংক্রান্ত রোগ কমাতে তথা ক্যান্সার রোগের নিরাময় হিসেবে। এ জন্যই অনেক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা কফি খাওয়ার পরামশ দিয়ে থাকেন।

কফির সাথে আছে জায়ফল, যা ফাইবারের একটি খুবই ভালো উৎস, এবং এটি ওজন কমাতেও সাহায্য করে। আবার এটি খেলে খিদেও কমে যায়। আর দারচিনি ফ্যাট কমানোর হরমোনের পরিমাণ বাড়ায় এবং মেটাবলিজমের হারও বাড়ায়। অন্যদিকে মেটাবলিজম রেট বাড়াতে সহায়তা করে দারচিনি।

মিডিয়াম চেন ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে নারকেল তেলে। যা আপনার মেদ কমিয়ে এনার্জি বাড়ায়। টানা ১২ সপ্তাহ ধরে সকালে এই কফি খেলে রক্তে ভাল কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়ে। বিএমআই কম হয়। সাথে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও দারুণ উপকারী এই কফি। এছাড়াও কফি রুখতেও সাহায্য করে ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস, সোয়াইন ফ্লু, সর্দি, জেনিটাল হারপিসের মতো রোগকে। আবার ভুঁড়িও কমে।


লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_