রবিবার-২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সন্ধ্যা ৭:১২

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ শিবগঞ্জে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রয় শুরু  ডোমারে খোলা বাজারে ওএমএস এর চাল ও আটা বিক্রয়ের শুভ উদ্বোধন। পার্বতীপুরে খোলা বাজারে চাল-আটা বিক্রি শুরু সংক্রমণ বাড়তে থাকলে হাসপাতালে জায়গা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে ওএমএস’র বিশেষ কার্যক্রম উদ্বোধন করোনার টিকা নিতে ১ কোটি সাড়ে ১৮ লাখ মানুষের নিবন্ধন টানা ৬ দিন বন্ধের পর আজ থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু

পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে নিরাপত্তা কর্মীর মৃত্যুতে শ্রমিকদের মাঝে চরম উত্তেজনা ॥

প্রকাশ: শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১ , ৩:১৮ অপরাহ্ণ , বিভাগ :


মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি
দেশের উত্তরঞ্চলের একমাত্র দিনাজপুর বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে মোঃ শহিদুল ইসলাম (৪২) নামে এক নিরাপত্তা কর্মীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শ্রমিকদের মধ্যে চরম উত্তেজনা, তদন্ত স্বাপেক্ষে বিচারের দাবি।
গতকাল শনিবার বিকাল সাড়ে ৪ টায় বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির আবাসিক এলাকায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন নিরাপত্তা কর্মী মোঃ শহিদুল ইসলাম।
মৃত্যুবরনকারী নিরাপত্তা কর্মী শহিদুল ইসলাম দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার বেলতলি এলাকার মোজাফ্ফর হোসেনর ছেলে। খনির শ্রমিক সাইফুল ইসলাম ও বেলাল হোসেন জানায় শহিদুল ইসলাম বিকাল চার টায় হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পড়েন এর কিছুণ পর তার মৃত্যু হয়। দুপুর আড়াইটায় অসুস্থ হয়ে পড়লে খনির কর্তৃপক্ষকে অ্যাম্বুলেন্সের জন্যে বারবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তারা কোন কর্ণপাত করেননি। এরপর শ্রমিকরা খনির বাহির থেকে ১টি অটোরিক্সা নিয়ে খনিতে ঢুকতে চাইলে কর্তৃপক্ষের বাঁধা। এ কারণে সময় কালক্ষেপন করায় নিরাপত্তা কর্মী মোঃ শহিদুল ইসলামের মৃত্যু হয়।
এমনকি ভ্যানগাড়ি নিয়ে আসার চেষ্টা করলেও খনির নিরাপত্তা ব্যবস্থাপক সৈয়দ হাছান ইমাম সেই ভ্যান খনির অভ্যান্তরে প্রবেশ করতে দেয়নি বলে শ্রমিকরা অভিযোগ করেন। পরবর্তীতে কর্তৃপক্ষ অ্যাম্বুলেন্স পাঠিয়ে দিলে তারা আগে সে মারা যায়। এতেকরে বিনাচিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে তারা অভিযোগ করেন। এই কারনে খনি শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এসময় তারা ঘটনা তদন্ত করে বিচারের দাবী জানান। অন্যথায় শ্রমিক ধর্মঘট করার হুসিয়ারী দেন।
এই বিষয়ে জানতে চাইলে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাশিদ কায়সার রিয়াদ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন এবং উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি রাতেই অবগত করা হবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত খনির ভিতরে শ্রমিকদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছিল এবং শ্রমিকরা কয়েকজন কর্মকর্তার অপসারণের দাবি করেন ও নিহত ব্যক্তির ক্ষতিপূরণ চান।
এ বিষয়ে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ কামরুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

 


রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_