বৃহস্পতিবার-২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ৯:৩৯

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ আড়াই কোটি টাকা ভ্যাট দিল ফেসবুক ১৮ বছর বয়সীদের টিকার নিবন্ধন ৮ আগস্ট থেকে বিধিনিষেধ: রাজধানীতে ৫৬৮ জন গ্রেফতার শ্রীমঙ্গলে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভাই বোনের মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে রাজাপুর গ্রাম থেকে গুইসাপ উদ্ধার, পরে বনে অবমুক্ত ডোমারের চিলাহাটি রেলষ্টেশন ট্রাইলে ভারতীয় ২টি পাওয়ার ইঞ্জিন। সুজানগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার টিকা গ্রহীতাদের উপচেপড়া ভীড়

ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে রাতে মুখোমুখি ইংল্যান্ড-ডেনমার্ক

প্রকাশ: বুধবার, ৭ জুলাই, ২০২১ , ৯:১৫ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ইউরো কাপের ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আজ রাতে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ ডেনমার্ক।

 

আজ রাতে ইউরোর সেকেন্ড সেমিফাইনাল। ঘরের মাঠ ওয়েম্বলিতে টুর্নামেন্টের হট ফেভারিট ইংল্যান্ডের সামনে এরিকসনকে হারানোর পরও ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প লিখে চলা ডেনমার্ক। একে তো ঘরের মাঠে খেলা, তার ওপর শক্তিমত্তায়ও এগিয়ে ইংলিশরা। তবে ডেনিশরাও ছেড়ে কথা বলবে না নিশ্চিত। ম্যাচটি শুরু হবে রাত ১টায়।

 

ইংল্যান্ডজুড়ে একটাই শোর ‘ইটস কামিং হোম’। ইংলিশদের ঘরে ট্রফি ফেরানোর মিশনে পানি ঢালতে প্রস্তুত ডেনমার্ক। এরিকসনকে হারানোর ব্যাথা ভুলে যারা লিখে চলেছে ঘুরে দাঁড়ানোর অবিশ্বাস্য এক গল্প।

 

ইংল্যান্ডের ফাইনালে ওঠার পথটা ছিল মসৃণ। কোয়ার্টার ফাইনালে ইউক্রেনের জালে দিয়েছে চার গোল। স্কটল্যান্ডের সাথে ম্যাচটা হয়েছে গোলশূন্য ড্র। বাকিগুলোতে ১-০ ব্যবধানে জয়। পুরো টুর্নামেন্টে এখনো কোনো গোল হজম করেনি ইংলিশরা।

 

উল্টোদিকে গ্রুপে প্রথম দুই ম্যাচ হেরেই খাদের কিনারায় ছিল ডেনমার্ক। রাশিয়াকে হারিয়ে নকআউট নিশ্চিতের পর অবশ্য আর পিছনে ফিরে তাকায়নি দলটা। পৌঁছে গেছে সেমিতে।

 

ইংল্যান্ডের জন্য সুবিধা। খেলাটা হাতের তালুর মতই চেনা ঘরের মাঠ ওয়েম্বলিতে। দুই সেমির সাথে ফাইনালও এখানেই। ঘরের মাঠে ২৫ বছরের শিরোপাখরা কাটানোর মিশনে ওরা তাই উজ্জীবিত থাকতেই পারে। দলটায় তারকার ছড়াছড়ি। গ্রিয়েলিশ, সাঞ্চো, র‌্যাশফোর্ডরা যেই দলে খেলেন বদলি হিসেবে তাদের বেঞ্চের শক্তি কতটা প্রবল সে তো বোঝাই যায়। চলতি ইউরোর সবচেয়ে দামি স্কোয়াডটাও থ্রি-লায়ন্সদের। ৪-২-৩-১ ফর্মেশন ঠিক রেখে প্রতি ম্যাচেই গ্যারেথ সাউথগেট তাই ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলিয়েছেন একাদশকে।

 

নামে ভারে ডেনমার্ক পিছিয়ে ঠিকই। তবে, এরিকসনকে হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করে ওরা আত্মবিশ্বাসে বলীয়ান। ইংলিশদের অ্যাটাক থামাতে ক্রিস্টিয়ানসন আর কায়েরের সাথে আরও একজন সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার খেলাতে পারে ডেনিশরা। মিডফিল্ডে ডেলানি-মায়েহেলে-হজবার্গরা ফর্মে আছেন। ফ্রন্টলাইনে ডলবার্গ-ব্রাথওয়েইটরাও তাই। ইংলিশদের কাজটা তাই সহজ হবে না মোটেও।


খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_