বুধবার-২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ৮:৩০

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ শিগগিরই আইপি টিভির রেজিস্ট্রেশন দেওয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী কক্সবাজারে ট্রেন চলবে আগামী বছর ডিসেম্বরে : রেলমন্ত্রী ফরাসি মিডিয়ার রোষানলে মেসি করোনায় আরও ৩৬ মৃত্যু, শনাক্ত ১,৩৭৬ সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন কৃষক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক নির্বাচিত শেষ হলো ১৬তম নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা জলবায়ুর পরিবর্তন জনিত প্রভাব মোকাবেলায় পার্বতীপুরে দুটি প্রকল্প পরিদর্শন করলেন

জলাবদ্ধতার ফলে খানসামার রামনগরে পুকুরে পরিণত ৫০ বিঘা আবাদী জমি, ব্যাহত চাষাবাদ

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১ , ১:০৫ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

এস.এম.রকি,খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: উত্তরের জেলা দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ভাবকি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে জলাবদ্ধতার ফলে আবাদী প্রায় ৫০ বিঘা জমি পুকুরে পরিণত হয়েছে। এতে ব্যাহত হচ্ছে ধান রোপণসহ চাষাবাদ।

মঙ্গলবার (৩আগস্ট) দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রামনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের দেিণ জলাবদ্ধতার কারণে তিন ফসলি জমি এখন এক ফসলি জমিতে পরিণত হয়েছে। এখন কেবল বোরো মৌসুমে একবার ধান উৎপাদন করতে পারছেন এ এলাকার কৃষকরা। বিশাল এলাকা জুড়ে পানি আর শেওলা। যখন উপজেলা জুড়ে পানির অভাবে সেচ যন্ত্রের সাহায্যে কৃষকরা আমনের চারা রোপণ করতেছে তখন রামনগর এলাকায় প্রায় ৫০ বিঘা জমি জলাবদ্ধতার কারণে পরে আছে। আবার কোথাও পাটের জাক দেওয়া হয়েছে। এতে কৃষকরা তির সম্মুখীন হচ্ছেন।

রামনগর এলাকার নাসির উদ্দীন ও ছকিমউদ্দীনসহ ভুক্তভোগী কৃষকরা বলেন, গত ৩ বছর আগে স্থানীয় সাফিয়ার রহমান পানি পারাপারের কালভার্ট বন্ধ করে দিয়ে বাড়ি নির্মাণ করে। তখন থেকেই জলাবদ্ধতার কারণে ৩ ফসলি জমিতে বছরে এক বার আবাদ করতে হচ্ছে। কালভার্টের মুখ খুলে দিয়ে ৫০/৬০ ফুট দীর্ঘ একটি ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা গেলেই পানি নিস্কাশনের মাধ্যমে এসব জমিতে বছরে তিন বার ফসল উৎপাদন করা সম্ভব হবে। আয়ের প্রধান উৎস ব্যাহত হওয়ায় গত ৩ বছর ধরে তাদের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে জানায় কৃষকরা।

ভাবকি ইউপি চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলাম বলেন, কালভার্টের মুখে বাড়ি নির্মাণ হওয়ায় পানি যাওয়া বন্ধ হয়েছে। এজন্য জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। গত বছর শেষের দিকে পাইপের সাহায্যে জলাবদ্ধতা নিরসন করে আংশিক আমন চাষ করা হয়েছিল। তিনি আরো জানান, জলাবদ্ধতা দূরীকরণে উপজেলা প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাথে পরামর্শ করে স্থায়ী সমাধান গ্রহন করা হবে।

এপ্রসঙ্গে ইউএনও কৃষিবিদ আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম বলেন, জলাবদ্ধতার বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। জলাবদ্ধ ফসলের মাঠ সরেজমিনে পরিদর্শনের করে দ্রুত জলাবদ্ধতা সমস্যা সমাধান করা হবে।


রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_