রবিবার-১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সকাল ৯:৫৯

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ পার্বতীপুরে ইয়াবা ও হেরোইন বিক্রির অভিযোগে মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক নতুন নির্বাচন কমিশন আইন অনুযায়ী গঠিত হবে : কাদের আগামীকাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করবেন শিক্ষামন্ত্রী স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেওয়া হবে’ রোপা আমন ক্ষেতে ক্ষতিকর পোকার উপস্থিতি শনাক্ত ও করণীয় নির্ধারনে আলোক ফাঁদ কার্যক্রম পাঁচবিবিতে পাটের দাম ভালো পাওয়ায় হাঁসি ফুটেছে কৃষকের মুখে ৩৩৩-এ কল করে খাদ্য সহায়তা পেল সাদুল্লাপুরের ৬০ কর্মহীন পরিবার

আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে : মেসি

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ , ৯:৫০ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: দীর্ঘ ২৮ বছরের শিরোপাখরা দুই মাস আগে ঘুচিয়েছে আর্জেন্টিনা। এমন এক শিরোপা জয়ের পর আত্মবিশ্বাসের পারদ আকাশেই চড়ে যাওয়ার কথা। সঙ্গে সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপটাও বেড়ে যাওয়ার কথা পাল্লা দিয়েই। সে প্রত্যাশা যে বিশ্বকাপেরই, সেটি আর না বলে দিলেও হচ্ছে।

 

তবে সে বিশ্বকাপ জেতাটা যে সহজ কিছু নয় আদৌ, সে বিষয়টাই যেন মনে করিয়ে দিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কঠিন সে কাজটা কী করে করতে হবে তাও জানালেন তিনি।

সম্প্রতি ইএসপিএন আর্জেন্টিনার অনুষ্ঠান এফ৯০কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি শুধু এ নিয়ে কথা বলেই ক্ষান্ত হলেন না; কথা বললেন কোপা জয়, আর্জেন্টিনা জাতীয় দল আর পরিবার নিয়েও।

 

শুরুতেই উঠে এলো দর্শক প্রসঙ্গ। কোপা আমেরিকা খেলতে হয়েছে ফাঁকা মাঠে। সে জন্য আক্ষেপ ঝরেছে তার কণ্ঠে। কিন্তু আগামীকাল সকালে বলিভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ফিরছে দর্শক। তাদের সামনেই এবার হবে দলের শিরোপা উদযাপন। সে জন্য উচ্ছ্বাসও প্রকাশ করলেন তিনি।

 

তিনি বলেন, ‘আমরা ভরা গ্যালারির সামনে খেলতে পারছি না, এটি খুবই দুঃখজনক। এবার সুযোগ এসেছে, আমাদের দর্শকদের সামনে এবার আমরা আনন্দ করবো, আমাদের জেতা শিরোপাটা তাদের দেখাবো। জাতীয় দলের হয়ে যখন থেকে খেলা শুরু করেছি, তখন থেকেই আর্জেন্টিনার হয়ে শিরোপা জিতে উদযাপন করতে চেয়েছি।’

 

শিরোপা জয়ের পর থেকেই আগের তারকাখচিত দলের সঙ্গে আর্জেন্টিনার এই দলের তুলনা চলে আসছে বেশ। আর্জেন্টাইন অধিনায়ক অবশ্য সেসবকে একপাশেই রাখতে চাইলেন। বললেন, ‘বর্তমান দলটা অসাধারণ, ২০১৯ কোপা আমেরিকাতেও এই দলটা খেলেছিল। কিন্তু ২০১৫, আর ২০১৪ সালের দলটাও বেশ ভালো ছিল। শক্তিশালী দল নিয়ে অনেকগুলো ফাইনাল খেলেছি আমি। তবে প্রায়শই জয় আর হারটা পার্থক্য সব কিছুর মধ্যে গড়ে দেয়।’

 

কোপা জয়ের পর বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ যে আসবে, তা এক রকম অবধারিতই ছিল। তবে মেসি জানালেন, সে জন্য আরও উন্নতি করতে হবে দলকে। বললেন, ‘আমরা বিশ্বসেরা নই, এটা মেনে নিয়েই শুরু করতে হবে। তবে আগেও আমরা বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ দল ছিলাম না, এর (কোপা জেতার) পরেও বিশ্বসেরা হয়ে যাইনি। আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে।’

 

দলের শক্তিসামর্থ্য তো আছেই, কোপা জিততে যে ভাগ্যেরও প্রয়োজন ছিল, সেটা মনে করিয়ে দিলেন মেসি। বললেন, ‘আমাদের একেবারে পরিষ্কার একটা লক্ষ্য ছিল। আমরা ম্যাচের জন্য বেশ ভালো প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। আমরা জানি কী করে খেলতে হবে। কখনো ভালো, কখনো খারাপ। স্বল্পমেয়াদি টুর্নামেন্টগুলোয় কেবল ফলাফলের দিকেই মনোযোগ দেওয়া হয়, গোল করাতে নয়। এখন কোপা আমেরিকায় আমরা যা করেছি, সেই ধারাটা ধরে রাখতে হবে, উন্নতি করে যেতে হবে। জিতলে ব্যাপারটা অনেক ক্ষেত্রেই স্বাধীনতা দেয়। কিন্তু আমার যে বিষয়টা চোখে পড়ছে, সেটা হলো দলের শক্তি। হ্যাঁ, বেশ কিছু সময় আমরা ভাগ্যবান ছিলাম। জয়ের জন্য এটাও চাই, এবার এটা আমাদের পক্ষে ছিল।’


খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_