রবিবার-২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ১:৪৫

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ লালমনিরহাটে সাইবার নিরাপত্তা সচেতনতা সেমিনার ও কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত  দুর্যোগে জনগণের পাশে ছিল শেখ হাসিনা সরকার-পলক রাজারহাটে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিবের ঘড়িয়ালডাঙ্গা গতিয়াসামে তিস্তারভাঙ্গণ কবলিত এলাকা পরিদর্শন। হিলিতে আউটলেট এ্যাডভাইজারী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত উলিপুরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পাঁচ দোকান আগুনে পুড়ে ছাই পাঁচবিবিতে বয়েন উদ্দিন স্মৃতি পুরুস্কার বিতরণ আদমদীঘিতে যেদিকে চোখ যায় শুধুই সবুজের অপরুপ সমারাহ

বরিশালে শিা প্রতিষ্ঠানে চলছে ধোঁয়া মোছার কাজ

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ , ১:২৩ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

বরিশাল ব্যুরো ॥ আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে সকল শিা প্রতিষ্ঠানের শ্রেনী কে পাঠদান শুরু হচ্ছে। প্রায় ১৭ মাস বন্ধ থাকার পর স্ব-স্ব বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে শিা প্রতিষ্ঠানকে পাঠদানের উপযোগি করতে চলছে ধোঁয়া মোছার কাজ।
নগরীসহ জেলার বিভিন্ন শিাপ্রতিষ্ঠানে গত তিনদিন থেকে সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা গেছে, সিংহভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বেহাল অবস্থা। দীর্ঘদিন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার অভাবে শ্রেনী ক ও বেঞ্চে জমেছে ধুলার আস্তর। কোন কোন বিদ্যালয়ের দেয়ালে নোনা ধরে খসে পরেছে প্লাস্টার। বদ্ধ কাসরুমে হয়েছে ব্যাঙ, টিকটিকি ও পোকা মাকড়ের আস্তানা। শিা প্রতিষ্ঠানের শৌচাগার পরিত্যক্ত অবস্থায় পৌঁছে গেছে। খেলার মাঠে বেড়ে উঠেছে বড় বড় ঘাস। ঘুনে ধরেছে আসবাবপত্র।
শিকরা এগুলোকে তুচ্ছ সমস্যা উল্লেখ করে বলেন, এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ হচ্ছে প্রতিজন শিার্থীর সু-স্বাস্থ্য নিশ্চিত করে নিয়মিত শিা কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া। বাংলাদেশ মাধ্যমিক প্রধানশিক্ষক ফোরামের গৌরনদী উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ মুজিবুর রহমান তালুকদার বলেন, বর্তমানে শিা এবং প্রাথমিক ও গণশিা মন্ত্রণালয় ‘রিওপেনিং’ (পুনরায় কাস চালু করা) পরিকল্পনা তৈরি করেছে। পাশাপাশি বিভিন্ন নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে শিা প্রতিষ্ঠানে। এছাড়া করোনা সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটিও এনিয়ে বেশকিছু সুপারিশ দিয়েছে। এসব নির্দেশনা মেনে প্রায় ১৭ মাস বন্ধ থাকা শিা প্রতিষ্ঠানে কার্যক্রম শুরুর েেত্র অনেকটাই চ্যালেঞ্জের মুখে পরতে হবে। তিনি আরও বলেন, সকল চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে সরকারী নির্দেশনা শতভাগ বাস্তবায়ন করার জন্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা এখনও পুরোপুরি প্রস্তুত রয়েছেন।
নগরীর শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধানশিক পাপিয়া জেসমিন বলেন, আগামী ১২ সেপ্টেম্বর নির্দেশনা মোতাবেক কাসে পাঠদান কার্যক্রম শুরুর সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। সেেেত্র সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক শিার্থীদের সুরার বিষয়টি সর্বপ্রথম বিবেচ্য বিষয়।
তিনি আরও বলেন, কাস ও কম্পাউন্ডে নির্দিষ্ট দুরত্ব বজায় রাখা, ওয়াস ব্লক, তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা, জীবানুনাশক স্প্রেসহ সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া যদি কোন শিার্থী অসুস্থবোধ করে তার জন্য আলাদা করে ব্যবস্থাসহ একজন শিক আলাদা রাখা হবে সার্বনিক সকল শিার্থীদের তদারকির জন্য। বিষয়টি কিছুটা কঠিন হবে জানিয়ে তিনি (পাপিয়া জেসমিন) প্রত্যেক শিার্থীদের স্বাভাবিক শিা জীবনে ফিরিয়ে আনতে দ্রুত কাসে পাঠদান শুরু করার ব্যবস্থা করায় শিক্ষামন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীকে সকল শিক্ষকদের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।


বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


বান্দরবানের লামায় চাঞ্চল্যকর ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় উত্তম কুমার বড়ুয়া (৩৪) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি চম্পাতলী এলাকার প্রমোদ বড়ুয়ার ছেলে। পুলিশ জানায়, ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে উত্তম কুমারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিষয়ে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেও অনেক প্রমাণ পাওয়া গেছে, তাই তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে আরও অনেক তথ্য জানা যাবে। বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (লামা সার্কেল) রেজুয়ানুল ইসলাম বার্তাবাজারকে বলেন, ‘ট্রিপল মার্ডার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডের অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে এখন সব বলা যাচ্ছে না। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিস্তারিত জানা যাবে।’ প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (২১ মে ) সন্ধ্যায় লামা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চম্পাতলী এলাকার কুয়েত প্রবাসী নুর মোহাম্মদের ঘর থেকে মাসহ দুই মেয়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতরা হলেন- নুর মোহাম্মদের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৪০) বড় মেয়ে রাফি (১৩) ও ছোট মেয়ে নুরি (১০ মাস)। ঘটনার পরদিন শনিবার নিহতের মা লালমতি খাতুন বাদী হয়ে মামলা করেন। সেই ঘটনায় সন্দেহভাজন জিজ্ঞাসাবাদে নেওয়া নিহতের দেবর, বোনসহ ছয়জনকে জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
_