বৃহস্পতিবার-১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১লা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ১০:০৩

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ সুপারিশপ্রাপ্তদের ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ভেরিফিকেশন ফরম পূরণের নির্দেশ টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব ছাড়ছেন কোহলি গণমাধ্যমে শৃঙ্খলা আনার দাবি সাংবাদিকদেরই : তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী নির্বাচনী এলাকায় ২০ সেপ্টেম্বর ব্যাংক বন্ধ পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে : ডিএমপি কমিশনার আজও ৫১ জনের মৃত্যু বিএনপি অরাজকতা করলে কঠোর হাতে দমন: কৃষিমন্ত্রী

‘মানিকে মাগে হিতে’ গেয়ে ট্রোল, পালটা জবাব হিরো আলমের

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ , ৬:৩০ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: এবার ‘মানিকে মাগে হিতে’ গাইলেন ওপার বাংলার হিরো আলম। ইতিমধ্যেই ‘হিট’ সেই গানও। কিন্তু, হিরো আলমকে নিয়ে সুখ্যাতি নয়, সমালোচনার ঝড় তুলেছেন নেটিজেনরা। গানটিকে বিকৃত করা হয়েছে, এমনই দাবি করে উষ্মা প্রকাশ করেছেন নেটিজেনরা। এক নেটিজেন লিখেছেন, ‘নিজ দায়িত্বে এই গান শুনবেন।’ অপর জনের রাগের গলায় বার্তা, ‘এত সুন্দর গানটা নষ্ট না করলে হত না!’

 

‘মানিকে মাগে হিতে’-র সুবাদে এখন সকলেরই শ্রীলঙ্কার গায়িকা ইয়োহানি ডে’ সিলভাকে চেনা। শ্রীলঙ্কার পপ তারকার গাওয়া এই গান নিমিষে ভাইরাল হয়েছে। দেশ-বিদেশে ভালোবাসা পাচ্ছে এই গান। বাংলায় এই গানের ফোক ভার্সন রেকর্ড করেছেন অনেকে। কিন্তু, নিজের ভঙ্গিমায় এই গান গেয়েছেন হিরো আলম। তার গলায় এই গান ‘চূড়ান্ত বেসুরো’ বলে উষ্মা প্রকাশ করেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

 কেন গানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন হিরো আলম?
হিরো আলমের গান নিয়ে একাধিক সময় সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এমনকী, তার গান শুনলে ‘হার্ট’-এর উপর প্রভাব পড়ে, রসিকতা করে লিখেছেন এক নেটিজেন। কিন্তু, সমালোচনা সত্ত্বেও গান রেকর্ড করা থামাচ্ছেন না হিরো আলম। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, সমালোচনা করলেও এই ভিডিওগুলির প্রত্যেকটিই বাণিজ্যিকভাবে হিট।

কেন ‘এভাবে গান করেন’, এবার তার সাফাই দিলেন হিরো আলম। তিনি সম্প্রতি একটি ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘হিরো আলম যেভাবে গান গান, এরকম গান আমরা নিজেরাও গেয়ে থাকি। আমি গান গাইলেও এই রকমই শোনায়। কিন্তু, আমি রেকর্ড করি না। হিরো আলম রেকর্ড করে। বাজারে ছাড়ে। আমরা তাকে নিয়ে হাসি-তামাশা করি। কারণ আমরা হিরো আলম থেকে নিজেদের সুপিরিয়র ভাবি। হিরো আলম গান গেয়ে আনন্দ পান। তার নিজস্ব জীবনবোধ আছে। তিনি আপনাদের মত চিন্তা করেন না। জীবনকে উদযাপন করার তার আলাদা প্রক্রিয়া আছে। এটা একান্ত ব্যক্তিগত। হিরো আলম কোন ক্রাইম করছে না। ফ্রিতে ইউটিউব আর ফেইসবুক পেয়ে স্বাধীনতা উপভোগ করছেন। এতে সংস্কৃতি ক্ষতিগ্রস্ত হলে বোঝা যায় আপনার সংস্কৃতি স্বাধীন ও শক্তিশালী না। আপনার সংস্কৃতি সবকিছু নিতে জানে না। কোথাও না কোথাও আটকে যায় মাঝেমধ্যে।’

 

এখানেই থেমে যাননি হিরো আলম। তিনি লিখেছেন, ‘ চাইলে আপনিও গান গাইতে পারেন। রেকর্ড করে বাজারে ছাড়তে পারেন। আমি মনে করি পৃথিবীর প্রতিটা মানুষের গান গাওয়ার স্বাধীনতা আছে। সেটা সুন্দর হোক, বা অসুন্দর হোক।’সূত্রঃ এবিএন


বিনোদন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_