রবিবার-৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সকাল ৮:১৫

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ বঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করা উচিত : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আগামীকাল থেকে টিসিবি’র পণ্য বিক্রি কার্যক্রম শুরু রাজনগরে অপহৃত এক শিশুকে সিলেট থেকে উদ্ধার ক্যাটরিনার বিয়েতে দাওয়াত পাননি সালমান-রণবীর! নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দল ঘোষণা গুরুতর আহত প্রিয়াঙ্কা শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষে শিবগঞ্জের অভিরামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক ও সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

ওজন কমবে হলুদ মেশানো পানিতে

প্রকাশ: সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১ , ৩:১৪ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: হলুদ একটি নিত্য প্রয়োজনীয় উপাদান। আমাদের প্রায় সব ধরনের রান্নার কাজেই কমবেশি হলুদের দরকার হয়। বিশেষ করে খাবারের রং, স্বাদ, গন্ধ বাড়াতেই এটি ব্যবহার করা হয়। তবে বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, রান্নায় হলুদ ব্যবহারের ফলে যে রং যোগ হয় সেটি খাবারের প্রতি আমাদের আকর্ষণও কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেয়। এসবের বাইরেও হলুদের রয়েছে নানান কার্যকারিতা। এটি আমাদের শরীরের জন্য ভীষণ উপকারি। বিভিন্ন ধরনের ভেষজ ওষুধ তৈরিতে হলুদের ব্যবহার বেশ পুরোনো।

তবে রান্নায় হলুদ ব্যবহারের পাশাপাশি হলুদ খাওয়ার আরেকটি সহজ মাধ্যম হলো হলুদ মেশানো পানি পান করা। হলুদ মেশানো পানি আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, টক্সিন বের করতে সাহায্য করে, ঋতু পরিবর্তনজনিত ঠান্ডা এবং ফ্লু থেকে দূরে রাখে।

চলুন জেনে নেই এটি তৈরি করার সঠিক উপায়-

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে

হলুদে থাকা কারকিউমিন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে সাহায্য করে, যা বিভিন্ন ধরনের রোগ থেকে আপনাকে দূরে রাখে। হলুদের অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য এই মসলাকে সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী করে তোলে। এটি ফ্রি-র্যা ডিক্যালের ক্ষতি প্রতিরোধ করে এবং অসুখ-বিসুখ থেকে দূরে রাখে।

বাতের ব্যথা দূর করতে সহায়তা করে

জয়েন্টে ব্যাথা আজকাল একটি সাধারণ সমস্যা। হলুদের আছে প্রদাহবিরোধী বৈশিষ্ট্য, যা বাতের ব্যথা উপশমে সাহায্য করতে পারে। প্রতিদিন এক গ্লাস হলুদ মিশ্রিত পানি জয়েন্টের ব্যথা দূর করতে সাহায্য করতে পারে।

ওজন কমাতে বেশ কার্যকরী

ওজন কমানোর জন্য প্রয়োজনীয় মৌলিক বিষয়ের একটি হলো পরিপাকতন্ত্রকে সুস্থ রাখা। প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় হলুদ মিশ্রিত পানি রাখলে তা হজমের উন্নতি করতে পারে। আপনি যখন হলুদ পানির সঙ্গে মিশিয়ে পান করবেন, তখন এটি আপনার বিপাককে আরও বাড়িয়ে দেবে এবং আপনার অতিরিক্ত ক্যালোরি ঝরাতে সাহায্য করবে।

ত্বকের জন্য উপকারী

হলুদে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা আপনার ত্বকের জন্য দারুণ কার্যকরী। হলুদ মিশ্রিত পানি পান করলে তা ফ্রি র্যাডিক্যালের ক্ষতি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। ফ্রি র্যাডিক্যালের ক্ষতির কারণে আপনাকে বয়সের তুলনায় বেশি বয়স্ক দেখাতে পারে। নিয়মিত হলুদ মিশ্রিত পানি পান করলে তা আপনার ত্বককে তরুণ ও উজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করবে।

ডিটক্সিফিকেশন

ডিটক্সিফিকেশন মানে শরীর থেকে সমস্ত বর্জ্য এবং বিষাক্ত পদার্থ অপসারণ করা। আমরা প্রতিদিন আমাদের খাদ্য, পরিবেশ এবং বায়ুর মাধ্যমে বিভিন্ন বিষাক্ত রাসায়নিকের সংস্পর্শে আসি। এসব আমাদের অসুস্থ করে তুলতে পারে। আমাদের শরীর সুস্থ রাখতে এই বর্জ্য অপসারণ গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন এক গ্লাস হলুদ মিশ্রিত পানি পান করলে তা শরীরের ডিটক্সিফিকেশনে সাহায্য করে।

হলুদ-পানি তৈরি করার সঠিক নিয়ম-

প্রথমে একটি ছোট হাড়ি নিন। এবার সেখানে এক কাপ পানি দিয়ে ফুটতে দিন। ফুটে উঠলে তাতে ২ চিমটি হলুদ যোগ করুন, ভালোভাবে মিশিয়ে আরও মিনিট দুয়েক ফুটতে দিন। এরপর চুলা বন্ধ করে দিন। পানিটুকু ছেঁকে নিয়ে গরম থাকতে থাকতেই পান করুন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া


লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_