তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন
muktinews24
সদ্য সংবাদ :
সৈয়দপুরে কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টারের বছরব্যাপী ফল উৎপাদনের মাধ্যমে পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্পের সার্বিক কার্যক্রম পরিদর্শন- হুইপ গিনি এমপি  দুইদিন বিরতি শেষে আবার শুরু চা শ্রমিক আন্দোলন, সমাধানে চলছে বৈঠক লালমনিরহাটের ঐত্যিবাহী সুকান দীঘিতে পদ্মফুল ফুটেছে শোক দিবসে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে রূপালী ব্যাংকের শ্রদ্ধা মানুষ কষ্ট পেলে আমারও কষ্ট হয় : প্রধানমন্ত্রী জিম্বাবুয়েতে যাওয়া হচ্ছে না ওয়াশিংটনের ৯ মাস পর দেশে ফিরছেন শাকিব খান অবশেষে সাকিবের দেখা পেল নিজের নাম ‘সাকিব’ রাখা খুদে ভক্ত বাল্যবিবাহ বন্ধে প্রয়োজন সম্মিলিত প্রচেষ্টা

বিশ্বের তৃতীয় দামি কোম্পানি সৌদি আরামকো

  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৭ অক্টোবর, ২০২১, ৫.০০ এএম
  • ৪৫ বার ভিউ হয়েছে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চাহিদাও বাড়ছে প্রতিনিয়ত। আর তার জেরে ফুলেফেঁপে উঠছে তেল উৎপাদনকারী দেশ ও প্রতিষ্ঠানগুলোর সম্পদের পরিমাণ। বুধবার (৬ অক্টোবর) শেয়ারবাজারে দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে দুই ট্রিলিয়ন (দুই লাখ কোটি) ডলার মূলধনের মাইলফলক স্পর্শ করেছে সৌদি আরামকো। ফলে গুগলের মূল কোম্পানি অ্যালফাবেটকে পেছনে ফেলে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের জায়গা দখল করেছে তারা।

 

এপির খবর অনুসারে, বিশ্বের সবচেয়ে দামি প্রতিষ্ঠান হওয়ার দৌড়ে কেবল অ্যাপল ও মাইক্রোসফটের পেছনে রয়েছে সৌদি আরামকো। প্রতিষ্ঠানটির বেশিরভাগ মালিকানাই সৌদি আরবের নিয়ন্ত্রণে। এর মাত্র দুই শতাংশ শেয়ার সৌদি তাদাউল শেয়ারবাজারে অন্তর্ভুক্ত।

 

বুধবার কার্যদিবসের মধ্যভাগে সৌদি আরামকোর শেয়ারের দর উঠেছিল ৩৭ দশমিক ৬ রিয়াল বা ১০ দশমিক ০৩ মার্কিন ডলারে। তবে শেষের দিকে তা কমে ৩৭ দশমিক ২ রিয়াল বা ৯ দশমিক ৯২ ডলারে দাঁড়ায়। এরপরও মূলধনের হিসাবে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম প্রতিষ্ঠান হওয়ার সম্মান অর্জন করেছে আরামকো।

 

সৌদি আরামকোকে শেয়ারবাজারে অন্তর্ভুক্ত করার পরিকল্পনাটি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের। তার নির্দেশেই ২০১৯ সালের শেষের দিকে প্রতিষ্ঠানটি শেয়ারবাজারে নাম লেখায়।

 

সম্প্রতি বিশ্ববাজারে তেলের দাম গত ৭ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে। তবে এতেও চাহিদা না কমায় বিপুল লাভের মুখ দেখছে সৌদি আরামকো। চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে তাদের আয় হয়েছে আনুমানিক ৪৭ বিলিয়ন বা ৪ হাজার ৭০০ কোটি ডলার, যা গত বছর একই সময়ে তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ। এর ফলে করোনার আঘাতে আয় কমে যাওয়ার আগে যে অবস্থায় ছিল আরামকো, দ্রুতই সেই পরিস্থিতিতে ফিরে গেছে তারা।

 

তবে সৌদি আরামকোর আয়ের হিসাবে ওঠানামা সত্ত্বেও প্রতিষ্ঠানটি ২০২৪ সাল পর্যন্ত শেয়ারহোল্ডারদের বার্ষিক ৭৫ বিলিয়ন ডলারের লভ্যাংশ দেওয়ার নীতিতে অটল রয়েছে, যার সবচেয়ে বড় অংশই পাবে সৌদি সরকার।
খবর আল জাজিরা

 

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam