রবিবার-১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-বিকাল ৪:২৩

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ ফুলবাড়ীতে বৃষ্টিপাতে  ধানের শীষ পঁচে নষ্ট হওয়ার আশংকা -কৃষকরা দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্র নষ্ট হলো করোনার দেড় কোটি ডোজ চিলমারী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের সাথে চিলমারী প্রেস ক্লাবের সদস্যদের মতবিনিময় জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছে আওয়ামী লীগ নোয়াখালীর সূর্য সন্তান আব্দুল মালেক উকিলের ৩৪তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত ব্রেন্টফোর্ডকে হারিয়ে শীর্ষে চেলসি কলাপাড়ায় হতদরিদ্র নারীদের সেলাই মেশিন বিতরণ।

ভারত থেকে আসা হনুমান ৫ দিন ধরে বগুড়ার সান্তাহার পৌর শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছে।

প্রকাশ: সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১ , ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :
এএফএম মমতাজুর রহমান আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
চরম বিপাকে পড়েছে ভারত থেকে দলছুট হয়ে লোকালয়ে আসা একটি হনুমান । গত ৫ দিন ধরে হনুমানটি বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার পৌর শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছে। কিছু মানুষ তার দিকে খাবার ছুড়ে দিলেও বিপাকে পড়ায় খাবারগুলো খাচ্ছে না। সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে মানুষের ভীড়। যেখানেই হনুমানটি যাচ্ছে সেখানেই শত শত মানুষ ভীড় করছে। যার কারনে সে ভীত হয়ে পড়েছে। ৫ দিন ধরে হনুমানটি শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ালেও এখন পর্যন্ত বন বিভাগের কেহ উদ্ধার করতে আসেনি ।
সরেজমিন রবিবার দুপুরে এটিকে দেখা যায় সান্তাহার স্টেশন রোডের একটি দোকানের সামনে বসে আছে। শত শত মানুষ তাকে দেখার জন্য সেখানে ভীড় করছে। সান্তাহার স্টেশন রোডের ব্যবসায়ী হিটলার বলেন, ৫ দিন ধরে হনুমানটি ঘুরে বেড়াচ্ছে কেউ রা করতে এগিয়ে আসেনি। হনুমানটি দ্রুত উদ্ধার করার জন্য বন বিভাগের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আর্কষন করছি। স্টেশন এলাকার আরেক ব্যবসায়ী সবুজ হোসেন বলেন, আপনার পেপারের মাধ্যমে সংবাদ লিখে দলছুট এই হনুমানটি কে দয়া করে রা করুন। তাছাড়া হনুমানটি না খেয়ে মারা যেতে পারে। সান্তাহার বিপি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক মোহসিন আলী বলেন, ভারত থেকে ভুলক্রমে মালবাহী ট্রাকে করে আসা দলছুট এই হনুমানটি এখন চরম বিপাকে পড়েছে। তাইতো অবিলম্বে বন বিভাগের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আর্কষন করছি যেন হনুমানটি দ্রুত উদ্ধার করা হয়। তাহলে হয়তো হনুমানটি বেঁচে যেত পারে। গত ৫ দিন ধরে হনুমানটিকে উদ্ধার না করায় বন বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার প্রতি তিনি ােভ প্রকাশ করেন। আদমদীঘি উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. কামরুন্নাহার বলেন, কোনো প্রানী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের চিকিৎসা দেওয়ার দায়িত্ব আমাদের। ফলে এ বিষয়ে আমাদের কিছুই করার নেই। আদমদীঘি উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত বন কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান ফোনে বলেন, হনুমানটি উদ্ধারের কোন সরঞ্জাম না থাকায় এটিকে উদ্ধার করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে রাজশাহী বন্যপ্রাণী সংরণ বিভাগে বিষয়টি জানানো হয়েছে।


ঢাকা,রংপুর,রাজশাহী,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_