বৃহস্পতিবার-৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সকাল ১০:৩৭

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ মৌলভীবাজার মুক্ত দিবস পালিত জলঢাকায় মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্প (৬৪ জেলা) শিক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধন ও উপকরণ  বিতরন সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকে মুরাদকে অব্যাহতি কানাডার উদ্দেশ্যে টিকিট কেটেছেন মুরাদ শুভ জন্মদিন সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বেগম রোকেয়া ছিলেন বাঙালি নারী শিক্ষা প্রসারের অগ্রদূত: প্রধানমন্ত্রী তারুণ্যের শক্তিই গড়বে উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী

কমলগঞ্জে চাঞ্চল্যকর নজমুল হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী আটক

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১ , ১:০৮ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জে ব্যবসায়ী নজমুলের হত্যার সাথে জড়িত মূল আসামীকে আটক করেছে পুলিশ। ৩১ অক্টোবর দুপুরে চৈত্রঘাট বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নজমুল (৩৬) কে প্রকাশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায় অপরাধীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সিলেট নেওয়ার পথে নজরুল মারা যায়। এ ঘটনায় সিসিটিভি ফোটেজ সামাজিক যোগাযেগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জেলা জোড়ে চাঞ্চল্যা সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) ভোররাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ বি এম মুজাহিদুল ইসলাম পিপিএম এর নেতৃত্বে মৌলভীবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি চৌকস দল ঢাকার কমলাপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে হত্যা মামলার মূল আসামী তফাজ্জল আলী (৩৫) কে তার এক সহযোগী খালেদ মিয়া (৫৩) সহ গ্রেফতার করা হয়।
আজ বৃহস্পতিবার ৪ নভেম্বর মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া।
পুলিশ সুপার জানান, এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তকালে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গ্রেফতারকৃতদের অবস্থান সনাক্ত করে ৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ভোররাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ বি এম মুজাহিদুল ইসলাম পিপিএম এর নেতৃত্বে মৌলভীবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি চৌকস দল ঢাকার কমলাপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে হত্যা মামলার মূল আসামী তফাজ্জল আলী (৩৫) কে তার এক সহযোগী খালেদ মিয়া (৫৩) সহ গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামী তফাজ্জল আলীর কাছ থেকে ১ টি পাসপোর্ট, এমিরেটস এয়ারলাইন্সের টিকেট, ২ টি ড্রাইভিং লাইসেন্স, ২ টি মোবাইল ফোন, ৫ টি দেশিবিদেশি সিমকার্ড ও ৩৩৮ দিরহাম উদ্ধার করা হয়।
সহযোগী খালেদ মিয়ার কাছ থেকে নগদ ১৯৩০০ টাকা, একটি মোবাইল ও একটি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়।
উল্লেখ্য গত ১ নভেম্বর ২০২১ ভোররাতে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত অস্ত্র ও মাইক্রোবাসসহ এজাহারনামীয় ২ জন আসামী জুয়েল (৪৫) ও আমির হোসেন হীরা(৪০) কে গ্রেফতার করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তফাজ্জল আলী হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় বিগত ২ জুন ২০২০ তারিখ নিহত নাজমুল আসামি জুয়েলের উপর হামলা করে পঙ্গু করে দেয়। মূলত প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা থেকে হত্যাকান্ডটি সংঘটিত হয়েছে।
আসামিরা তাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য ১০/১৫ দিন আগে থেকে ভিকটিমকে নজরদারি করতে থাকে। ঘটনার দিন হামলা পরিকল্পনার অংশ হিসাবে ভাড়ায় চালিত একটি মাইক্রোবাসে করে চৈত্রঘাট কালী মন্দিরের সামনে হামলাকারীরা অপেক্ষা করতে থাকে। ঐদিন বাজার কিছুটা জনশূন্য হলে ভিকটিম নাজমুলকে পেয়ে তফাজ্জলের নেতৃত্বে ৮/১০ জনের একটি দল ধারালো অস্ত্র দিয়ে নৃশংসভাবে কুপিয়ে দ্রুত সটকে আত্মগোপনে চলে যায়।
জিজ্ঞাসাবাদে তফাজ্জল আরো জানায় পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী বিদেশে পলায়নের জন্য আগে থেকেই বিমানের টিকেট কাটা ছিল।
সংবাদ সম্মেলন শেষে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া জানান মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ সকল ধরনের হত্যা, ধর্ষণ ও নৃশংস সন্ত্রাসী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে সবসময়ই আপোষহীনভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিচারের সম্মুখীন করতে দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে কাজ করছে জেলা পুলিশ। তিনি মৌলভীবাজার বাসীকে নিরাপদ রাখতে সাংবাদিকসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।


রাজশাহী,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_