শুক্রবার-২৮শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ-১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-রাত ২:০৮

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ বিএনপি ধ্বংস ছাড়া মানুষকে কিছু দিতে পারেনি: প্রধানমন্ত্রী সুন্দরগঞ্জে নদীর পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু মৌলভীবাজারে ১৪২ জনের করোনা শানাক্ত রাত পোহালেই চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোট এনবিআরের প্রাক-বাজেট আলোচনা শুরু ৬ ফেব্রুয়ারি লবিস্ট নিয়োগে কোটি কোটি ডলার ব্যয়ের ব্যাখ্যা বিএনপিকে দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনা আক্রান্তের ৬ মাস পরও শরীরে উপসর্গ থাকছে

‘রোজা’স মেকওভার’ ধানমন্ডি শাখার সাফল্যের ১ বছর

প্রকাশ: সোমবার, ১ নভেম্বর, ২০২১ , ১:৫৫ অপরাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: নিজ উদ্যোগে ১৫ বছর আগে অর্থাৎ ২০০৬ সালে সায়মা রোজা টাঙ্গাইলে প্রতিষ্ঠা করেন ‘রোজা’স বিউটি সেলুন’। এটির সাফল্যের পর ২০১২ সালে ঢাকার মোহাম্মদপুরে ‘রোজা’স মেকওভার’ নামে নতুন একটি শাখা চালু করেন। সেই শাখার সাফল্যের পর গত বছরে ধানমন্ডিতে একই নামে নতুন শাখা খুলেন তিনি।

গেল বছরের ১লা নভেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডিতে বিউটি সেলুনের তৃতীয় আউটলেট ‘রোজা’স মেকওভার’ এর উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনীতে উপস্থিত ছিলেন শোবিজের অনেক মডেল। জনসাধারণের কাছে এটি স্বল্প সময়ের মধ্যে একটি বিশ্বস্ত পরিসেবা খাত হয়ে উঠেছে। দেশের অনেক নামী দামী মডেলসহ অভিনেত্রীরাও এখানে পরিসেবা নিয়ে থাকেন।

সাফল্যের সঙ্গে এক বছর অতিবাহিত হওয়ায় বেশ আনন্দিত সায়মা রোজা বলেন, আমার দীর্ঘ ক্যারিয়ারে আমি সবসময় কাস্টমার প্রায়োরিটি এবং কোয়ালিটিতে বিশ্বাস রেখেছি যার কারণে আজ এতদূর আসতে পেরেছি। শোবিজের অনেক মডেল, শিল্পী নিয়মিতই আমার সেলুন কিংবা পার্লারে আসেন। কোয়ালিটি মেইনটেইন করার কারণে সুনামের সঙ্গেই কাজ করে যেতে পারছি। আমার এখানে এখন পর্যন্ত যারা এসেছেন তাদের সবাই বেশ সন্তুষ্ট। আমি সবসময় সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে আমার কাজ পরিচালনা করে আসছি, আমার কর্মীদেরও সবসময় উৎফুল্ল রাখার চেষ্টা করি যেন তারা তাদের কাজে কোনো ত্রুটি না রাখে।

তিনি আরও বলেন, টাঙ্গাইলের পর মোহাম্মদপুর এবং গত বছরে ধানমন্ডিতে নতুন শাখা খুলি। গত বছর করোনার প্রকোপে অনেকে যখন কাজহীন, তাদেরকে আমি আমার এখানে এনে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছি। আমার এখানে সব মিলিয়ে ২০ জনের মত কর্মী রয়েছে। করোনার সময়ে সবাই যেখানে ভরসা হারাচ্ছিলো সেখানে আমি রিস্ক নিয়েছি, অনেক প্রতিকূলতা সামলেছি; তারপরও কাজ করেছি।

প্রসঙ্গত, সায়মা রোজা একজন উদ্যোক্তা এবং সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ। দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে মেকওভার করে আসছেন তিনি। এই সেক্টরে কাজ শুরু করার আগে তিনি কিছু বিদেশী এবং ঘরোয়া কোর্স করেছিলেন। মেকওভারের উপর বিশেষ প্রশিক্ষণও নিয়েছেন।

২০১৯ সালে দিল্লির শীর্ষ আয়োজক সংস্থা সাসা মিডিয়া প্রাঃ লিমিটেড কর্তৃক এশিয়ার মধ্যে সেরা উদীয়মান মেকওভার হিসেবে ‘মিলেনিয়াম ব্রিলিয়েন্স অ্যাওয়ার্ড’এ সম্মাননা লাভ করেন সায়মা রোজা। বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের হাত থেকে ‘ইন্টারন্যাশনাল ফেম অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ সম্মাননা পান সায়মা। সেই সাথে লাভ করেন ‘এশিয়ার সেরা উদীয়মান মেকআপ আর্টিস্ট’ হিসেবে মিলেনিয়াম ব্রিলিয়েন্স অ্যাওয়ার্ড ও প্রশংসাপত্র।

সূত্রঃ বাংলাদেশ জার্নাল


লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_