তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ৮ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে  নৌকা ৪ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ৪ জন

  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১, ১১.২৯ এএম
  • ৫১ বার ভিউ হয়েছে
মোঃ লাভলু শেখ  লালমনিরহাট থেকে।
আগামী ১১ই নভেম্বর লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনায় রয়েছেন প্রার্থীদের মধ্যে । ০৩ নং কমলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহমুদ উমর চিশতী  নৌকা পেয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে  তার পিতা মরহুম সামসুল ইসলাম সুরুজ একাধারে ৫বার  চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিল এবং  জেলা আওয়ামীলগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ছিলেন মৃত্যুর পর  শওকত আলী ২বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার বড় ভাই ইমরুল কায়েস ফারুক  বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  এখানে বর্তমান হাতপাখা চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন তার ইমেজ অনেকটাই কমে গেছে এবং তার বাড়ি সংলগ্ন সাবেক উপজেলা ছাত্রদলের সম্পাদক সাইফুল ইসলাম অপু স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অনেকটাই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অপরদিকে বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী মাইদুল ইসলাম জুয়েল দীর্ঘদিন থেকে মাঠে কাজ করে যাচ্ছে গত ইউপি নির্বাচনে তৃতীয় স্থানে রয়েছিল তার রয়েছে নিজস্ব ভোট ব্যাংক । সারপুকুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম প্রধান কিছুটা জনপ্রিয়তা কমে গেছে তিনি মাঠ গোছানোর  চেষ্টা করছে। অপরদিকে আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী হুমায়ুন কবির গত ইউপি নির্বাচনে অল্প ভোটে ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মাঠে থাকায় জনগণের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বাদশা আলম নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর অনেকটা ভোটের ক্ষতি হয়েছে। এদিকে বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা যুবদলের সভাপতি  নাহিদুল ইসলাম মানিক মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তিনি নির্বাচনের নতুন মুখ। আর হাতপাখার মনোনীত প্রার্থীর  কোনো ইমেজেই নেই। ভেলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের মনোনীত আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী তার রয়েছে নিজস্ব ভোটব্যাংক দীর্ঘদিন থেকে চেয়ারম্যান থাকায় সাধারণ ভোটারদের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছে । বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী রিপন গত নির্বাচনে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছিল। দীর্ঘ দিন ধরে মাঠে থাকায় ভোটারদের মনে আস্থা অর্জন করতে পেরেছে অনেকটাই দাবি করছেন সাধারণ ভোটারগণ । হাতপাখা মনোনীত প্রার্থী মাওলানা আজারুল ইসলাম মাঠে থাকা আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিজয় হতে অনেকটা সহজ হবে বলেছেন সাধারন ভোটারগণ । দুর্গাপুর ইউনিয়নের বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সালেকুজ্জামান প্রামানিক অনেকটাই বিতর্ক হয়ে পড়লে সাধারণ ভোটারদের কাছে এবং তার গ্রামের অপর প্রার্থী ইসরাইল হোসেন নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বর্তমান চেয়ারম্যানের ছালেকুর জামান প্রমানিকের অনেক ভোট ইসরাইলের বাক্স চলে যাবে জানালেন ভোটারগণ । এদিকে প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজার রহমান নান্নু  ব্যাপক জনপ্রিয় নেতা সাধারণ ভোটারগণ বলেন পুরান চাউলে ভাতে বাড়ে । এই সুযোগে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ভুট্টা নান্নু সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে। গত ইউপি নির্বাচনে তিনি দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল। সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সোহরাব হোসেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী তার রয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা এবং ব্যাপক  অর্থ-সম্পদের মালিক ভোটারগণ বলছেন  ব্যাপক ভোটে বিজয় হতে পারে বলে সম্ভাবনা রয়েছে। ওই ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি অনন্ত কুমার দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন। তিনি সাধারণ ভোটারের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হলেও অর্থ না থাকায় অনেকটাই দুর্বল তিনি। জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী  আব্দুল্লাহ আল মামুন তার নেই ব্যক্তিগত ইমেজ ওই ইউনিয়নের নৌকার পাল্লা অনেক ভারী । উপজেলার সদর  ভাদাই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান কৃষ্ণকান্ত রায় বিদুর ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে অপর প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান রোকনুজ্জামান রোকন বিজয় ছিনিয়ে আনতে রাতদিন মাঠে অক্লান্ত পরিশ্রম করে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। তার দাবি তিনি বিজয়ী হবেন । জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী নতুন মুখ হিসেবে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা করছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি  রবিউল ইসলাম বাবুল দীর্ঘদিন ধরে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করছেন । এই ইউনিয়নের নৌকা এবং আনারস মার্কা  হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে  বলে জানিয়েছেন সাধারণ ভোটাররা। পলাশী ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান শওকত আলী বিভিন্ন কার্যকলাপে বিতর্কিত চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচিত ওই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জনপ্রিয় ব্যক্তি আলাউল ইসলাম ফাতেমী পাভেল তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন সাধারণ ভোটারগণ বললেন। তার প্রতিদ্বন্দী আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শওকত এবং জামায়াতে ইসলামীর নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থীর সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। ৮ নং মহিষখোচা ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান পদে রয়েছে ২ জন এর মোসাদ্দেক হোসেন চৌধুরী বর্তমান চেয়ারম্যান তিনি বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ভোটারা জানান।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam