রবিবার-৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ-২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সকাল ৭:২১

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ বঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করা উচিত : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আগামীকাল থেকে টিসিবি’র পণ্য বিক্রি কার্যক্রম শুরু রাজনগরে অপহৃত এক শিশুকে সিলেট থেকে উদ্ধার ক্যাটরিনার বিয়েতে দাওয়াত পাননি সালমান-রণবীর! নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দল ঘোষণা গুরুতর আহত প্রিয়াঙ্কা শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষে শিবগঞ্জের অভিরামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক ও সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

সার্চ থেকে ফটো ডিলিট করার টুল আনছে গুগল

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১ , ৪:২৪ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: নতুন একটি টুল আনতে যাচ্ছে গুগল, যার মাধ্যমে অভিভাবকরা তার নাবালক সন্তানের ছবি মুছে দিতে পারবেন গুগল সার্চ থেকে। বুধবার একটি ব্লগপোস্টে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তারা এমন একটি টুল আনতে যাচ্ছে, যার মাধ্যমে কোনও অভিভাবক তার ১৮ বছরের নিচে বয়সের শিশুর ছবি গুগলের ইমেজ ট্যাব থেকে অথবা থাম্বনেইল থেকে একেবারে সরিয়ে দিতে পারবেন।

সিএনএন জানায়, এর আগে গুগল অফার দিয়েছিল যে কোনো ব্যবহারকারী তার ব্যক্তিগত তথ্য-ছবি, যেগুলো তার অসম্মতিতে পোস্ট হয়েছে অথবা আর্থিক, মেডিক্যাল অথবা জাতীয় পরিচয়পত্র সম্পর্কিত কোনও তথ্য অনুরোধের ভিত্তিতে সরিয়ে ফেলতে পারবেন।

নতুন এই সিদ্ধান্তে একজনের ছবি ইন্টারনেট থেকে সম্পূর্ণ মুছে না গেলেও ব্যবহারকারী সেই ছবি ধারণকারী ইউআরএলকে ফ্ল্যাগ করে দিতে পারবেন। সম্পূর্ণ রিমুভ করতে চাইলে ব্যবহারকারীকে সংশ্লিষ্ট ওয়েব সাইটের কাছে অনুরোধ করতে হবে।

গুগল আরও জানায়, তাদের প্রতিষ্ঠান এ রকম প্রতিটি সাবমিশনকেই রিভিউ করবে। যদি তারা প্রয়োজন মনে করে তা হলে আরও কিছু তথ্য চেয়ে নেবে।

এর আগে গত আগস্টে গুগল এমন একটি ঘোষণা দিয়েছিল বলে জানায় সিএনএন, যার মাধ্যমে নাবালকদের ইন্টারনেটে নিরাপত্তা নিশ্চিত হতে পারে। সেখানে আরও কিছু ফিচারের কথা জানিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। যেটা প্রাইভেট ডিফল্ট সেটিংস এর মতো, যেখানে কোনও টিনএজার ভিডিও আপলোড করলে সেটার সঙ্গে তার অভিভাবকের একটা লিঙ্ক তৈরি হবে; যার মাধ্যমে অভিভাবক সেটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

এ বিষয়ে আলেকজান্ড্রা হ্যালমেট নামে একজন ক্লিনিক্যাল সাইকোলোজিস্ট বলেন, গুগলের এই সিদ্ধান্তটি অভিভাবদের জন্য সহায়ক হবে তাদের সন্তানদের সঙ্গে এ বিষয়ে আরও আলোচনা করতে। আর এই সুযোগে একজন অভিভাবক অনলাইনের বিভিন্ন ভালো-খারাপ বিষয় নিয়ে তার সন্তানের সঙ্গে আরও বিস্তারিত আলোচনা করতে পারবেন। এতে শিশুদের মাঝে ভালো-খারাপের ধারণাটি আরও পরিষ্কার হবে।


তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_