তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৪০ অপরাহ্ন

অ্যাশেজের দ্বিতীয় দিনেও চালক অস্ট্রেলিয়া

  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২.০৮ পিএম
  • ৫৬ বার ভিউ হয়েছে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ট্রাভিস হেডের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে ব্রিসবেন টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে বড় সংগ্রহের পথে অস্ট্রেলিয়া। হেডের দ্রুত সেঞ্চুরি আর ওয়ার্নার ও ল্যাবুশানের ফিফটিতে এদিন অজিদের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ৩৪৩ রান। ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার অল্পের জন্য সেঞ্চুরি মিস করলেও পাঁচে নামা ট্রাভিস হেড ১১২ রানে অপরাজিত থেকেই দিন শেষ করেছেন।

প্রথমদিন ইংল্যান্ডকে মাত্র ১৪৭ রানে অলআউট করেও আলোক স্বল্পতার কারণে ব্যাটিংয়ে নামা হয়নি অজিদের। দ্বিতীয় দিন সকালে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার মার্কাস হ্যারিসকে হারালেও ওয়ার্নার আর ল্যাবুশানে মিলে আর কোনো বিপদ ঘটতে দেননি। ১০ রানে প্রথম উইকেট হারানো অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় উইকেটে যোগ করে ১৫৬ রান। জ্যাক লিচের বলে আউট হওয়ার আগে ল্যাবুশানে করেন ৭৪ রান।

১৬৬ রানে ল্যাবুশানে যাওয়ার পর খুব দ্রুতই তিন উইকেট হারিয়ে বসে অজিরা, স্মিভেন স্মিথ খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি এদিন। ১২ রানেই বিদায় নেন টেস্টের দুই নাম্বার ব্যাটসম্যান। সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৬ রান দূরে থাকা ওয়ার্নারও ক্যাচ দিয়ে বসেন কাভারে থাকা স্টোকসের হাতে। এরপর অলরাউন্ডার ক্যামেরন গ্রীন ফেরেন কোনো রান না করেই।

এরপরই ক্রিজে আসেন ট্রাভিস হেড। অভিষিক্ত অ্যালেক্স ক্যারিকে নিয়ে দ্রুতই তিন উইকেট হারানোর চাপ সামাল দেন হেড। ক্যারি ১২ রান করে ফিরলে অজি কাপ্তান প্যাট কামিন্সকে নিয়ে আরেকটি জুটি গরেন হেড। দলীয় ৩০৬ রানে কামিন্সও আউট হয়ে গেলে মিচেল স্টার্ককে সাথে নিয়ে বাকি দিনটি পার করেন ট্রাভিস হেড। ওয়ানডে মেজাজে ব্যাটিং করা হেড ১২ চার আর ২ ছয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন ৮৫ বলের মাথাতে, শেষ পর্যন্ত ৯৫ বলে ১১২ রানে অপরাজিত থেকে দিনের খেলা শেষ করেন।

আগেরদিন আজি পেসাররা যতটা সফল ছিলেন, দ্বিতীয় দিন গ্যাবার পিচে বোলিং করতে তেমন একটা সুবিধা করতে পারেননি ইংলিশ বোলাররা। শুধু অলি রবিনসন নিয়েছেন তিন উইকেট।

আর এদিকে নতুন করে টেস্টে ফেরার পর এই টেস্টে বোলিং করতে এসে নো বল কেলেঙ্কারির জন্ম দেন ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। নিজের প্রথম পাঁচ ওভার বোলিংয়ের ভিতরেই ১৪টি ‘ফ্রন্ট ফুট’ নো বল করেন স্টোকস। আশ্চর্যের বিষয় যে এই ১৪ নো বলের মাত্র দুটি বাদে বাকি আর একটিও মাঠের আম্পায়ার বা টিভি আম্পায়ারের নজরে পড়েনি। এই টেস্টে মাঠের আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পল রেইফেল ও রড টাকার আর টিভি আম্পায়ার হিসেবে আছেন পল উইলসন।

স্টোকসের এই নো বল কীর্তি প্রথম সামনে আনেন চ্যানেল সেভেনের একটি ভিডিও। সেখানেই প্রথম দেখা যায় একই বোলারের ১২টি নো বলকে বৈধ বল হিসেবে গণনা করেছেন আম্পায়াররা। সূত্রঃ বাংলাদেশ জার্নাল

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam