তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন

কে জিতবে ট্রফি? ভারত নাকি বাংলাদেশ?

  • প্রকাশ মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২.৫১ পিএম
  • ৩৭ বার ভিউ হয়েছে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ভারতের বিপক্ষে সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ছয়টায় শুরু হবে ম্যাচটি। এই ম্যাচের আগে মঙ্গলবার বাফুফেতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ডায়াসে সাজানো চ্যাম্পিয়নশিপের ঝকঝকে ট্রফি। বাংলাদেশ ও ভারতের দুই খেলোয়াড় এবং কোচ সেই ট্রফি নিয়ে পোজও দিলেন। দুই দেশের অধিনায়ক মারিয়া মান্দা ও সুমাতি কুমারি ট্রফির উপর হাত রেখে হাসি মুখে ছবিও তুললেন। তবে কে জিতবে এই শিরোপা, দুই অধিনায়কের কার মুখে হাসি ফুটবে, সবই জানা যাবে কাল।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স, রেকর্ড আর দলীয় শক্তির নিক্তিটা বাংলাদেশের দিকেই ঝুঁকে আছে। তবে ম্যাচটি ফাইনাল বলেই মারিয়াদের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন একটু সতর্ক। তার কথায়, এই টুর্নামেন্টে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন আমরা। এই আসরেও চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। লিগ পর্যায়ে ভালো খেলেছি, ফাইনালে আরো একটু ভালো খেলে শিরোপাটা নিজেদের কাছেই ধরে রাখতে চাই আমরা।

২০১৮ সালে সাফ অনুর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ভূটানের মাটিতে। নেপালকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এবার করোনার জন্য এই টুর্নামেন্ট পিছিয়ে এই বছরের শেষ দিকে গড়াচ্ছে। এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের সঙ্গে সংগতি রেখে সাফের টুর্নামেন্টের বয়সসীমা এক বছর বাড়িয়ে অ-১৯ করা হয়েছে। বাংলাদেশ এই আসরের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন।

এছাড়াও আগামীকালের ফাইনালে ছোটনের দল অনুপ্রেরণা খুঁজে নিতে পারে আরেকটি ফাইনাল থেকে, ২০১৭ সালে এই কমলাপুর স্টেডিয়ামেই ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশ সাফ অ-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতেছিল। চার বছর পর সেই ভেন্যুতেই অ-১৯ এর আসর। সেই অ-১৫ দলের অনেক খেলোয়াড়ও রয়েছেন এই দলে।

তবে এই সব তথ্য ও পরিসংখ্যান আমলে নিতে চান না ভারতের কোচ অ্যামব্রোক্স এলেক্স। তিনি বলেন, তিন বছর আগের হিসাব কষতে চাই না। ফাইনাল ম্যাচে নিজেদের সেরাটা দিয়ে শিরোপা জিততে চাই। দল হিসেবে বাংলাদেশ অত্যন্ত সুসংগঠিত এবং স্বাগতিক সমর্থনও রয়েছে তাদের সাথে। লড়াইটা অনেক কঠিন হবে। ফাইনালের আগে আমি কাউকে এগিয়ে রাখব না সুনির্দিষ্টভাবে। তবে আমার দলের শিরোপা জেতার সামর্থ্য রয়েছে।

বাংলাদেশ লিগ পর্যায়ে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল। পেনাল্টি থেকে করা সেই গোলের প্রতিবাদ করেছিলেন ভারতীয় কোচ। ফাইনালের আগে অবশ্য রেফারিং নিয়ে তেমন চিন্তিত নন এলেক্স, ফুটবল ম্যাচে এ রকম কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটতেই পারে। এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন হবার কিছু নেই।

লিগ পর্বের চার ম্যাচে ১৯ গোল করেছে বাংলাদেশ। বিপরীতে কোনো গোল হজম করেনি। লিগের শেষ ম্যাচে এক গোল হজম করে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে নেপাল। ফাইনালের আগে গোলকিপিং নিয়ে সন্তুষ্টিই প্রকাশ করলেন কোচ ছোটন, রুপনা চাকমা দারুণ কিপিং করছে। সে টুর্নামেন্টের সেরা গোলকিপার। আমরা এই পজিশন নিয়ে চিন্তিত নই।

সূত্রঃ বাংলাদেশ জার্নাল

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam