বৃহস্পতিবার-২০শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ-৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সকাল ৭:২১

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ করোনাভাইরাস: বাংলাদেশ কি হার্ড ইমিউনিটির দিকে যাচ্ছে? বাংলাদেশের বোলিং কোচ হতে আগ্রহী টেইট মৌলভীবাজারে আশার শাখা ব্যবস্থাপকদের ষান্মাসিক সমন্বয় সভা মৌলভীবাজারে নতুন করে আরো ৪৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত সুজানগরে ১৪টন পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক খাদে, চালক-হেলপার অক্ষত তজুমদ্দিনে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন কর্তৃপক্ষের অভিযানে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা তজুমদ্দিনের মেঘনায় অভিযান ২২ হাজার মিটার অবৈধ জাল উদ্ধার

বাঙ্গালীপুরের ভোটের হাওয়া এবার সাইদুল হক বাবলুর অনুকূলে, সরগরম হাট মাঠ পাড়া মহল্লা

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২১ , ৯:২১ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :
মোঃজাকির হোসেন সৈয়দপুর (নীলফামারী)প্রতিনিধিঃ আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরুর আগেই নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের ভোটের হাওয়া এবার স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা সাইদুল হক বাবলুর অনুকূলে।
ইউনিয়নের হাট মাঠ পাড়া মহল্লা এখনই সরগরম তাঁকে নিয়ে। বাড়ী বাড়ীতে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু সাবেক এই ইউপি মেম্বারের নাম। ছোট বড় নারী পুরুষ সর্বস্তরের মানুষের মাঝে একই সুর ‘এবার চেয়ারম্যান হবেন বাবলু ভাই’।
ভোটাররা তাঁকে নির্বাচিত করার জন্য প্রতিশ্রুতিবন্ধ হয়ে স্বউদ্যোগে নাঠে নেমেছে ভোটের কার্যক্রমে। পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও জনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছে সমানতালে। বিশেষ করে তরুন প্রজন্মের নতুন ভোটাররা ব্যাপক উৎসাহ নিয়ে প্রচার প্রচারণায় মেতে উঠেছে বাবলুর পক্ষে।
এলাকার তরুণ ভোটাররা বলেন, এর আগে পর পর ২ বার ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়ে টানা ১৪ বছর দায়িত্ব পালন করেছেন বাবলু ভাই। গতবার তিনি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করেছিলেন। রাজনৈতিক কূটকৌশলে তাকে হারানো হয়েছিল। কিন্তু ষড়যন্ত্রকারীও নৌকা নিয়েও পরাজিত হয়েছে।
সেই ষড়যন্ত্রকারী এবারও নৌকা নিয়ে প্রার্থী হলেও পূর্বের মতই জনধিকৃত হবে এবং তার ভাতিজাও বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় জনমনে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ভোটারদের মন্তব্য একই পরিবারের দুই প্রার্থী। তারা নিজেরাই নিজেদের ছাড় দেয়নি। চেয়ারম্যানীকে তারা পারিবারিক সম্পত্তি মনে করে। এমন ব্যক্তিদের আর কোন সুযোগ দেয়া হবেনা।
এবার বাবলু ভাইকেই আমরা আমাদের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবো। কারণ তিনি জনসেবায় একজন পরীক্ষিত মানুষ। জনপ্রতিনিধি না হয়েও তিনি বিগত দিনে নিঃস্বার্থভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। রাত দিন যখনই প্রয়োজন হয়েছে তখনই তাকে কাছে পেয়েছেন সর্বস্তরের মানুষ। ব্যক্তিগত জীবনেও তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সৎ ও আন্তরিক। মানুষের দুঃখ কষ্টে একান্ত সহমর্মী হিসেবে তিনি সবার কাছে সুপরিচিত।
রাহেলা বেগম নামে একজন বয়স্ক মহিলা ভোটার বলেন, বাবলু ছোট বেলা থেকেই অত্যন্ত পরোপকারী ও মিশুক। তার আচরণে সকলেই সন্তুষ্ট ও সহযোগীতা পেয়ে উপকৃত। আমরা এবার অবশ্যই তাঁকে নির্বাচিত করবো।
একই রকম মতামত ব্যক্ত করেন সর্বস্তরের লোকজন। যার ফলে বাবলুর বিজয় নিয়ে আগাম আভাস সৃষ্টি হয়েছে এলাকাজুড়ে।
গতকাল সোমবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে চৌমুহনী বাজার এলাকায় গণসংযোগকালে সাইদুল হক বাবলু বলেন, আমি একজন রাজনীতিবিদ। দীর্ঘ দিন থেকে সততার সাথে জনসেবায় সম্পৃক্ত। জনগণের সুখে দুঃখে তাদের পাশে থেকে সাহায্য সহযোগীতা করে যাচ্ছি। একারনে এলাকাবাসী আমাকে জনপ্রতিনিধি হয়ে সরকারী সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিতে ভোট করার জন্য অনুরোধ জানায়।
তাদের উৎসাহ ও এলাকার মুরুব্বীদের পরামর্শে বিগত দুইবার মেম্বার পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি ও বিজয়ী হয়ে জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করেছি। আমার কাজে সন্তুষ্ট থাকায় ইউনিয়নবাসী আমাকে গতবার চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী করেছিল। কিন্তু কৌশলে হারানো হয়। তারপরও জনগণের ডাকে সাড়া দিয়ে তাদের সকল কাজে সহযোগীতা অব্যাহত রেখেছি।
এবারও তাদের অনুরোধে প্রার্থী হয়েছি। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট হলে এবার জয়লাভে শতভাগ আশাবাদী। করোনাকালে নিজের সামান্য সামর্থ্য নিয়েই কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষকে সাহায্য করেছি। সকলের সম্মিলিত ইতিবাচক প্রচেষ্টায় ইনশাআল্লাহ বিজয়ী হবো।

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_