বৃহস্পতিবার-২০শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ-৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,-সকাল ১০:১১

Reg No-36 (তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত)

শিরোনামঃ করোনাভাইরাস: বাংলাদেশ কি হার্ড ইমিউনিটির দিকে যাচ্ছে? বাংলাদেশের বোলিং কোচ হতে আগ্রহী টেইট মৌলভীবাজারে আশার শাখা ব্যবস্থাপকদের ষান্মাসিক সমন্বয় সভা মৌলভীবাজারে নতুন করে আরো ৪৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত সুজানগরে ১৪টন পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক খাদে, চালক-হেলপার অক্ষত তজুমদ্দিনে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন কর্তৃপক্ষের অভিযানে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা তজুমদ্দিনের মেঘনায় অভিযান ২২ হাজার মিটার অবৈধ জাল উদ্ধার

রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ৩ জনের মৃত্যু

প্রকাশ: সোমবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২১ , ৬:০৮ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ :

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনা সংক্রমণে একজন এবং উপসর্গ নিয়ে আরও দুজন মারা গেছেন। রবিবার (৫ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে সোমবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল ৯টার মধ্যে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে তারা মারা যান।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে করোনা সংক্রমণে নাটোর জেলার একজন রোগী মারা গেছেন। এ ছাড়া করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন নওগাঁ ও পাবনা জেলার একজন করে।

হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) একজন এবং ২৯-৩০ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন মারা গেছেন। এক দিনে মারা যাওয়া তিনজনই পুরুষ। তাদের দুজনের বয়স ষাটোর্ধ্ব। অন্যজনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে।

এদিকে ১০৪ শয্যার রামেক করোনা ইউনিটে সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত রোগী ভর্তি ছিলেন ৩১ জন। এক দিন আগেও এই সংখ্যা ছিল ৩৬ জন। বর্তমানে রাজশাহীর ১৭ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের চারজন, নওগাঁর পাঁচজন, নাটোরের দুজন এবং পাবনার দুজন রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

 

হাসপাতালে করোনা নিয়ে ভর্তি রয়েছেন আটজন। করোনার উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ২২ জন। করোনা ধরা পড়েনি ভর্তি দুজনের। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন সাতজন। এই এক দিনে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন সাতজন।

 

এদিকে রবিবার রামেক হাসপাতাল ল্যাবে ৪২ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা ধরা পড়েছে ছয়জনের নমুনায়। এই দিনে রামেক ল্যাবে ১৮৪ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে রাজশাহীর তিনজনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষার অনুপাতে করোনা শনাক্তের হার ৪ দশমিক ৩৭ শতাংশ। সূত্রঃ এবিএন


করোনা ভাইরাস বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


_