তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭:২০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
সান্তাহারে ৪০ দিনের কর্মসৃজন কাজের উদ্বোধন রাজনগরে আসামি নিয়ে ফেরার পথে সড়ক দূর্ঘটনায় এসআই নিহত, আহত ৭ লালমনিরহাটে জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত লালমনিরহাটে সোলার হোম সিস্টেম বিতরণ অনুষ্ঠিত ফাঁকিবাজ শিক্ষকদের শাস্তিযোগ্য বদলি প্রয়োজন: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী লালমনিরহাট সদর উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ রোভার শিক্ষক মোঃ লিয়াকত আলী সরকার নির্বাচিত তজুমদ্দিনে মেঘনা ঘূর্ণিবাতাসের দুই জেলে ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে পাঁচবিবিতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ৪ ছিনতাইকারীসহ ২০ জন আটক উলিপুরে হতদরিদ্রদের মা‌ঝে শাড়ী লু‌ঙ্গি বিতরণ   সুজানগর হাসপাতাল সিএনজি গ্যারেজে পরিণত

শুঁটকি ব্যবসায়ীদের কারণে সুজানগরে পুঁটি মাছের আকাল

  • প্রকাশ সোমবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ১০.৩৮ এএম
  • ২৯ বার ভিউ হয়েছে

সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি ঃ পাবনার সুজানগরের হাট-বাজারে চলতি শীতের মৌসুমে পুঁটি মাছের আকাল দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে স্থানীয় শুঁটকি ব্যবসায়ীরা পুঁটি মাছ চাতালে নিয়ে শুকানোর কারণে হাট-বাজারে পুঁটি মাছের দেখাই মিলছেনা।
জানা যায়, উপজেলার ঐতিহ্যবাহী গাজনার বিল সংলগ্ন চরদুলাই, হাটখালী, সুজানগর মসজিদপাড়া, ভাটিকয়া এবং শাড়ীরভিটাসহ বিভিন্ন এলাকায় গড়ে উঠেছে শুঁটকির চাতাল। এক শ্রেণির শুঁটকি মাছ ব্যবসায়ী বিল থেকে মৎস্যজীবীরা পুঁটি মাছ ধরামাত্র চড়াদামে কিনে ওই চাতালে নিয়ে যাচ্ছে। ফলে হাট-বাজারে পুঁটি মাছ পাওয়া যাচ্ছেনা। উপজেলার হাটখালী গ্রামের আজাহার আলী শেখ বলেন বৃহত্তর গাজনার বিলসহ আশপাশের বিভিন্ন বিলে প্রচুর পরিমাণে পুঁটি মাছ আছে। স্থানীয় মৎস্যজীবীদের জালে প্রতিদিন শত শত মণ পুঁটি মাছ ধরাও পড়ছে। কিন্তু ওই মাছ হাট-বাজারে উঠছেনা। হাট-বাজারে যাওয়ার আগেই শুঁটকি ব্যবসায়ীরা বিল থেকে পুঁটি মাছ কিনে সরাসরি শুঁটকির চাতালে নিয়ে যাচ্ছে। গাজনার বিলপাড়ের দুলাই গ্রামের রমজান আলী বলেন বর্ষা মৌসুম শেষ হয়ে শুষ্ক মৌসুম আসলেও হাট-বাজারে পুঁটি মাছের তেমন দেখা নাই। অথচ গাজনার বিলসহ আশপাশের ৭/৮টি বিলে পর্যাপ্ত পুঁটি ধরা পড়ছে। কিন্তু শুঁটকি ব্যবসায়ীরা বিলপাড় থেকে পুঁটি মাছ কিনে নিয়ে যাওয়ায় আমরা হাট-বাজারে পুঁটি মাছ পাচ্ছিনা। একই এলাকার ভ্যান চালক আব্দুল মজিদ বলেন অন্যান্য মাছের চেয়ে পুঁটি মাছের দাম কম। আমরা অভাবী মানুষ বড় মাছ কিনতে পারিনা। হাট-বাজারে পুঁটি মাছ উঠলে কিনে খেতে পারতাম। কিন্তু শুঁটকি ব্যবসায়ীদের কারণে তাও পারছিনা। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা নূর কাজমীর জামান খান বলেন উপজেলার খাল-বিলে প্রচুর পুঁটি মাছ আছে। কিন্তু শুঁটকি ব্যবসায়ীদের কারণে হাট-বাজারে পুঁটি মাছের আমদানি কম।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam