তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১১:৩১ অপরাহ্ন

লালপুরে ইমো প্রতারক চক্রের আরো চার সদস্য আটক

  • প্রকাশ শুক্রবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ৬.৪৯ এএম
  • ৩০ বার ভিউ হয়েছে

 

নাটোর প্রতিনিধি
নাটোরের লালপুরে মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম “ইমো” হ্যাকিং করে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণাপূর্বক অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় চক্রের চার সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। আটককৃতরা হলো লালপুর উপজেলার মহরাজপুর এলাকার চন্দ্রের প্রামানিকের ছেলে জনি হোসেন (২০), বিলমাড়িয়া এলাকার নছির মন্ডলের ছেলে মিলন (২১), ফাতেপুর এলাকার শরিফুল ইসলামের ছেলে সজু ইসলাম (২০), নাগশোষা এলাকার আব্দুল মালেক সরকারের ছেলে মারুফ হোসেন (২০)।
বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার মাধবপুর ঠাকুরমোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।এসময় আটককৃতদের নিকট থেকে দুইটি মোটরসাইকেল, চারটি মোবাইল ফোন ও নগদ তিন হাজার দুইশত টাকা জব্দকরা হয়।
গণমাধ্যমে র‌্যাব ৫এর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর একটি অপারেশন দল কোম্পানী অধিনায়ক, অতিঃ পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ হোসেন এবং কোম্পানী উপ-অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ রফিকুল ইসলাম এর নেতৃত্বে লালপুর উপজেলার মাধবপুর ঠাকুরমোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুইটি মোটরসাইকেল, চারটি মোবাইল ফোন ও নগদ তিন হাজার দুইশত টাকাসহ ইমো প্রতারক চক্রের চার সদস্যকে আটক করা হয়। আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবৎ ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে প্রবাসীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের “ইমো” ব্যবহারকারীদের ইমো হ্যাক করে এবং পরবর্তীতে ভিকটিমের পরিচিতজনদের নিকট হতে প্রতারণাপূর্বক মোবাইল ফিন্যান্সিং সার্ভিস (বিকাশ) এর মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নিয়ে আসছে। এঘটনায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে লালপুর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২০/২৪/৩৪/৩৫ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।এই অভিযান আগামীতেও অব্যহত থাকবে বলে জানায় র‌্যাব।’

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam