তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১২:০৯ অপরাহ্ন
সদ্য সংবাদ :
বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে সাকিবের অবিশ্বাস্য রেকর্ড আদমদীঘিতে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা তৃতীয় দিনে ৯২ হাজারের বেশি টিকিট বিক্রি শেখ হাসিনার বারতা নারী পুরুষ সমতা  উলিপুরে চেক বিতরণ অনুষ্ঠান  মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভা ও ক্রাইম কনফারেন্স অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে জিএম কাদেরের ঈদ শুভেচ্ছা ফুলবাড়ীতে নেসকো কোম্পানীর বিদ্যুৎ নিয়ে ভেলকিবাজি এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আগস্টে নোয়াখালীতে উদ্বোধনের ২৪ ঘন্টা না যেতেই বিআরটিসি বাসঃ পুনরায় চালুর দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়ের লালমনিরহাট ক্যাম্পাসের একাডেমিক সেশন উদ্বোধন করেন বিমান বাহিনী প্রধান

আসছে অ্যান্থলজি সিরিজ ‘পেটকাটা ষ’

  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২, ১০.১৫ এএম
  • ৩৬ বার ভিউ হয়েছে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্কঃ আচ্ছা বলুন তো, শেষ কবে ভূতের গল্প পড়েছেন? বা ভূতের সিনেমা দেখেছেন? একদম বাঙালি ভূতের গল্পের কথা বলছি। যে গল্পে শাঁকচুন্নি, পিশাচ, পেত্নী, ভূত সবই থাকবে। কেন এমন জানতে চাইছি? কেননা এবার ভৌতিক এক কনটেন্ট আসছে ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম চরকিতে।

চরকিতে বাংলা ক্লাসিক ভৌতিক ঘরানার অ্যান্থলজি সিরিজ পেটকাটা ষ আসতে চলেছে। সিরিজটি পরিচালনা করেছেন নুহাশ হুমায়ূন।

বছরের প্রথম থেকেই চরকির অরিজিনাল সিরিজ ও সিনেমা দেখে দর্শক যেভাবে সাড়া দিচ্ছে তা আসলে আশাব্যঞ্জক। শাটিকাপ, নিখোঁজ এরপর আসতে চলেছে এই খাঁটি বাংলা ভূতের গল্প চরকির অ্যান্থলজি সিরিজ পেটকাটা ষ। সিরিজটিতে থাকবে মোট ৪টি পর্ব। এই বিল্ডিংয়ে মেয়ে নিষেধ, মিষ্টি কিছু, লোকে বলে ও নিশির ডাক নামের পর্বগুলো মুক্তি পাবে এপ্রিল মাসের প্রত্যেক বৃহস্পতিবার অর্থাৎ ৭, ১৪, ২১ ও ২৮ এপ্রিল রাত ৭.৫৯ মিনিটে।

চরকিতে এই প্রথম নুহাশের কোনো কাজ আসতে চলেছে। কেন তিনি এই সিরিজের নাম পেটকাটা ষ দিয়েছেন এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘মূর্ধন্য ষ-কে আমরা সবাই ছোটবেলা থেকে পেটকাটা ষ বলি। কেউ বাংলা ভাষা শিখলেই এই অক্ষরটাকে পেটকাটা ষ বলে ও চিনে। কিন্তু কেন? কোনো বাংলা বই বা কোথাও কিন্তু পেটকাটা ষ লেখা নেই। খুব ভৌতিক একটা অদ্ভুত নাম। কিন্তু কেমন করে যেনো লোককথার মাধ্যমে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে জিনিষটা খুব পরিচিত হয়ে গেছে।

‘আমার কাছে মনে হয়েছিল এই ভূতের গল্পগুলোও একই রকম। কোথাও লেখা নেই। পুরাটা লোককথা। কিন্তু মুখে মুখে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে ছড়িয়ে গেছে। সো ফাইনালি, পেটকাটা ষ-কে পেটকাটা ষ বলতে চাই; লিখতে চাই। আর ভূতের গল্পগুলোকে আমার মতো করে আধুনিকভাবে একত্রিত করতে চাই।’

নুহাশ আরও বলেন, ‘কিছু বাংলা ভূতের গল্প আছে আমাদের সবার শোনা। মাছ রাঁধলে পেত্নী আসে, মিষ্টির দোকানে রাতে জ্বীন আসে, নিশির ডাক শুনতে নেই, খোলা চুলে সন্ধ্যায় বের হতে নেই। এইসব ক্লাসিক বাংলা ভূতের গল্প কিন্তু আমাদের ঐতিহ্য। এক প্রজন্ম থেকে আরেক প্রজন্মের অলিখিত গল্প। এই গল্পগুলোকে এক স্ক্রিন আনার সময় এসেছে। এই গল্পগুলো উপলব্ধি করার সময় এসেছে। পেটকাটা ষ-তে সেই ক্লাসিক গল্পগুলোকে নতুন করে উপস্থাপন করেছি।’

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam