তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৬:১০ অপরাহ্ন

পিটারসেনকে ফেরালেন মিরাজ

  • প্রকাশ বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২, ১.১৩ পিএম
  • ৬৭ বার ভিউ হয়েছে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্কঃ ডারবানে সিরিজের প্রথম টেস্টে মাঠে নেমেছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশ। এদিন টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুমিনুল হক। নির্ধারিত সময়ে টস হলেও খেলা শুরু হয় প্রায় ৩০ মিনিট পর। মূলত মাঠের সাইট স্ক্রিনের সমস্যার কারণে খেলা শুরু হতে বিলম্ব হয়েছে।

ডারবানে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। উইকেটে হালকা ঘাস থাকলেও তা কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশি পেসাররা।

উল্টো ওয়ানোডে মেজাজে ব্যাট চালাচ্ছেন দুই প্রোটিয়া ওপেনার ডিন এলগার ও সারেল এরওয়ে। দেখেশুনে খেলে হাফ সেঞ্চুরি আদায় করেছেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ডিন এলগার। প্রায় ৮০ স্ট্রাইক রেটে খেলছেন তিনি।

অপরপ্রান্তে কিছুটা রয়ে সয়ে খেলছেন আরেক ওপেনার সারেল এরওয়ে। যদিও মধ্যাহ্নভোজের ঠিক আগমুহূর্তে তাকে ফেরানোর সুযোগ ছিল বাংলাদেশের সামনে। মেহেদী হাসান মিরাজের বল ব্যাটে লেগে উইকেটরক্ষক লিটন দাসের গ্লাভসে গেলেও তিনি তা লুফে নিতে পারেননি।

ফলে ২৫তম ওভারের চতুর্থ বলের সেই ক্যাচ মিসের আক্ষেপ নিয়েই মধ্যাহ্নভোজ বিরতিতে যায় বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ছিল বিনা উইকেটে ৯৫ রান।

বিরতির পর পুরোনো দমে খেলতে থাকে দুই প্রোটিয়া ওপেনার। কিন্তু বেশীক্ষণ রাজত্ব করতে পারেনি তারা। তাদের ১১৩ রানের জুটি ভাঙেন খালেদ আহমেদ। খালেদের করা বল প্রোটিয়া অধিনায়ক এলগারের ব্যাটের উপরের অংশ ছুঁয়ে পেছনে গেলে উইকেটরক্ষক লিটন তা লুফে নেন।

১০১ বলে ৬৭ রান করে ফেরেন এলগার। পরের ওভারে ফের আঘাত হানেন মেহেদী মিরাজ। ১০২ বলে ৪১ রান করা এরওয়েকে ইনসাইড এজে বোল্ড করেন তিনি। প্রথম সেশনের সাদা-মাঠা বাংলাদেশ দ্বিতীয় সেশনে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

দুই ওপেনারের বিদায়ের পর এবার রান আউটে কাটা পড়লেন কেগান পিটারসেন। মিরাজের সরাসরি থ্রোতে ১৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই টপ অর্ডার ব্যাটার। দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৫২ ওভারে ওভারে ৩ উইকেটে ১৬৪ রান।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam