তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন
সদ্য সংবাদ :
বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিনের প্রতিকৃতিতে দুর্গাপুর পৌরসভার শ্রদ্ধাঞ্জলি নতুন দুই সিনেমায় ফজলুর রহমান বাবু আমাজনের সেরা এমপ্লয়ি কমলগঞ্জের মিজান বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ দুর্গাপুরে বঙ্গমাতার জন্মদিনে ভাইস চেয়ারম্যান সাদ্দাম আকঞ্জি’র দোয়া ও মিলাদ মাহফিল ঢাকার দুই মেয়র পূর্ণমন্ত্রীর মর্যাদা পাচ্ছেন মুরগির খামারে বিজি মারতে বানানো ফাঁদে মারা গেলেন নিজেই দুর্গাপুরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন পালিত সান্তাহার স্টেশনে চোর চক্রের এক সদস্য গ্রেপ্তার চিলমারীতে সোনালী ব্যাংকের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর

যানজট নেই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে, স্বস্তির ঈদযাত্রা

  • প্রকাশ শনিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২২, ৮.৪৬ এএম
  • ৩৩ বার ভিউ হয়েছে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্কঃ সংস্কারকাজ, মহাসড়কের পাশে বাজার থাকাসহ বিভিন্ন কারণে ঈদযাত্রায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজটে আটকে থাকার আশঙ্কায় ছিলেন চালক ও যাত্রীরা। তবে সেই শঙ্কা কেটে গেছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে শেষ পর্যন্ত স্বস্তিতে বাড়ি ফিরছেন মানুষ। মহাসড়কের কুমিল্লা অংশের প্রায় ১০৫ কিলোমিটার এলাকা এখন যানজট মুক্ত।এতে আনন্দ প্রকাশ করেছেন চালক ও যাত্রীরা।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কুমিল্লা সদর থেকে দাউদকান্দি পর্যন্ত প্রায় ৫০ কিলোমিটার এলাকায় মহাসড়কে এক বছর মেয়াদি চার লেনের পরীক্ষামূলক সংস্কারকাজ গত বছরের নভেম্বর মাসে চান্দিনা উপজেলার কাঠেরপুল এলাকা থেকে শুরু করে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ কুমিল্লা। চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে সংস্কারকাজটি পুরোদমে শুরু হয়। গত প্রায় চার মাস ধরে সংস্কারকাজের কারণে মহাসড়কে প্রায় সময়ই যানজটের সৃষ্টি হয়ে দিনভর মানুষকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। কারণ, কাজের সময় এক লেন বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে দুইমুখী গাড়ি এক লেন দিয়ে চলাচল করেছে। বিশেষ করে এই রজমানে প্রায়ই যানজটে আটকে তীব্র গরমে মহাসড়কে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে চালক ও যাত্রীদের। এছাড়া মহাসড়কের পাশে বাজার বসায় এবং তিন চাকার যান প্রায়ই মহাসড়কে ঢুকে পড়ায় ঈদযাত্রায় যানজট সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা করেছিলেন চালক ও যাত্রীরা। তবে ২৫ রমজানের পর থেকে সওজ বিভাগ কাজ বন্ধ রাখায় মহাসড়ক এখন যানজট মুক্ত।

আজ শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ঘুরে দেখা গেছে, মহাসড়কের চট্টগ্রামমুখী লেনে গাড়ির চাপ বেশি রয়েছে। আর ঢাকামুখী লেনে পণ্যবাহী পরিবহনের চাপ বেশি। তবে কোথাও যানজট নেই। মানুষ নির্বিঘ্নে ও স্বস্তিতে ঘরে ফিরছে।    ঢাকা থেকে কুমিল্লার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া এশিয়া পরিবহনের বাস চালক মো.হাফিজ উদ্দিন জানান, সায়েদাবাদ থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত টুকটাক যানজট ছিল। তবে দাউদকান্দি থেকে কুমিল্লা শহরে প্রবেশ পর্যন্ত তেমন কোনো যানজট নেই। আমরা এখন স্বস্তিতে আছি। দুই থেকে আড়াই ঘণ্টার মধ্যে কুমিল্লা থেকে ঢাকা পৌঁছাতে পারছি। ঈদের পরও আমরা এমন পরিবেশ চাই।  ঢাকা থেকে কুমিল্লাগামী বাসযাত্রী মাহফুজ আলম বলেন, গত কয়েকটি মাস সড়ক সংস্কারের কারণে প্রায়ই যানজটে আটকে দুর্ভোগে পড়েছি। তবে শেষ পর্যন্ত স্বস্তিতে বাড়ি ফিরতে পারছি, এটাই আনন্দের। মানুষ নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে চায়, এ জন্য হাইওয়ে পুলিশকে সবসময় তৎপর থাকতে হবে।আরেক বাসচালক হানিফ মিয়া বলেন, সংস্কারকাজ বন্ধ এবং হাইওয়ে পুলিশ তৎপর থাকায় মহাসড়কে যানজট নেই। তবে কোথাও দুর্ঘটনার কারণে যানজট যেকোনো সময় লেগে যেতে পারে। এক্ষেত্রে হাইওয়ে পুলিশকে সব সময় তৎপর থাকতে হবে।

আজ দুপুরে এসব প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হাইওয়ে পুলিশ, কুমিল্লা অঞ্চলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ বলেন, মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে হাইওয়ে পুলিশের সদস্যরা দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে। এখন মহাসড়ক সম্পূর্ণ যানজট মুক্ত। বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার অন্যান্য সময়ের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ গাড়ি চলাচল করেছে, তবে কোথাও যানজট সৃষ্টি হয়নি। আশা করছি ঈদযাত্রায় যাত্রীদের কোনো সমস্যা হবে না। এছাড়া মহাসড়ক এখন সম্পূর্ণ ভালো। তাই নির্বিঘ্নে গাড়ি চালাতে পারছেন চালকরা।পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ আরও বলেন, কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে কক্সবাজারের টেকনাফ পর্যন্ত আমাকে এলাকা। ঈদযাত্রায় আমরা প্রতিটি স্থানে তৎপর রয়েছি। এরই মধ্যে মহাসড়কে আমাদের ৫৬টি টহল দল ও ৩০টি কুইক রেসপন্স টিম কাজ করছে। এছাড়া প্রস্তুত রয়েছে ১১টি রেকার টিম। কোথাও কোনো গাড়ি বিকল হলে বা দুর্ঘটনার কবলে পড়লে দ্রুত সেটি অপসারণ করা হচ্ছে। আশা করছি আমরা যেকোনো সমস্যা দ্রুত সময়ের মধ্যে সমাধান করতে পারবো।সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী সুনীতি চাকমা বলেন, বর্তমানে মহাসড়কের কোথাও কোনো ধরনের খানাখন্দ নেই। যার কারণে মানুষ নিরাপদ চলাচল করতে পারছে। মহাসড়কের কুমিল্লার অংশে এখন যানজট মুক্ত। যেসব জায়গায় হাটবাজার আছে সেখানে হাইওয়ে পুলিশের সঙ্গে আমাদের লোকেরাও কাজ করছেন। তারা যানজট রোধে সার্বক্ষণিক কাজ করছেন।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam