তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন
সদ্য সংবাদ :
বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিনের প্রতিকৃতিতে দুর্গাপুর পৌরসভার শ্রদ্ধাঞ্জলি নতুন দুই সিনেমায় ফজলুর রহমান বাবু আমাজনের সেরা এমপ্লয়ি কমলগঞ্জের মিজান বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ দুর্গাপুরে বঙ্গমাতার জন্মদিনে ভাইস চেয়ারম্যান সাদ্দাম আকঞ্জি’র দোয়া ও মিলাদ মাহফিল ঢাকার দুই মেয়র পূর্ণমন্ত্রীর মর্যাদা পাচ্ছেন মুরগির খামারে বিজি মারতে বানানো ফাঁদে মারা গেলেন নিজেই দুর্গাপুরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন পালিত সান্তাহার স্টেশনে চোর চক্রের এক সদস্য গ্রেপ্তার চিলমারীতে সোনালী ব্যাংকের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর

পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হিসেবে পদন্নোতি পেয়েছেন পিরোজপুর এর কৃতি সন্তান এ কে এম এহসান উল্লাহ্

  • প্রকাশ শুক্রবার, ১৩ মে, ২০২২, ২.১৪ পিএম
  • ৩৯ বার ভিউ হয়েছে

 

পিরোজপুর প্রতিনিধি :
পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হিসেবে পদন্নোতি পেয়েছেন পিরোজপুর এর কৃতি সন্তান এডিশনাল (ডিআইজি) এ কে এম এহসান উল্লাহ্। পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি), তৃতীয় গ্রেডে ৩৪ জনকে পদোন্নতি দিতে যাচ্ছে সরকার। মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ডের (এসএসবি) বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ওই ৩৪ জনকে পদোন্নতির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ কে এম এহসান উল্লাহ্্ বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি কার্যলয়ে অতিরিক্ত উপ পুলিশ মহাপরিদর্শক হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। তিনি বিসিএস ২০ তম ব্যাচের গ্রেডশন ২১৪। এ কে এম এহসান উল্লাহ্্ এর পিতা এ কেএম আমানউল্লাহ ডালিম ছিলেন একজন ম্যাজিষ্ট্রেট। তার বাড়ি পিরোজপুর শহরের পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডে হাসপাতাল সড়কে। এ কে এম এহসান উল্লাহ্ এর দাদা আব্দুস সোবাহান ছিলেন পিরোজপুরের তৎকালীন মহকুমা আওয়ামী লীগের সভাপতি, বিশিষ্ট আইনজীবী আবদুস সোবাহানের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠতা ছিল। তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর। ১৯৪৮ সালে রোজ গার্ডেনে আওয়ামী মুসলিম লীগ প্রতিষ্ঠিত হলে আবদুস সোবাহান পিরোজপুর মহকুমার প্রতিনিধি হিসেবে এই সম্মেলনে যোগ দেন। বঙ্গবন্ধু দক্ষিণাঞ্চল সফরে এলে পিরোজপুরের হাসপাতাল সড়কে ‘সোবাহান মঞ্জিল’ নামক দ্বিতল ভবনে অবস্থান করতেন। এই বাড়িতে জাতির জনক ১৯৫৪ সালে যুক্তফ্রন্টের নির্বাচন কালে, ১৯৫৬ সালে ও ১৯৭০ সালে নির্বাচনে সফরের সময় অবস্থান করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রতি বছর ডিআইজি পদে পদোন্নতি হয়। এরপর গত প্রায় দেড় বছর এই পদে (ডিআইজি) কোনো পদোন্নতি হয়নি। সর্বশেষ পদোন্নতি ২০ সালের ডিসেম্বরে। এবারের পদোন্নতির জন্য ১৮ ও ২০তম ব্যাচের কর্মকর্তাদের বিবেচনা করা হয়েছে। এ ছাড়া সিনিয়র ব্যাচের কয়েকজন কর্মকর্তাও আছেন তালিকায়। এর আগে ২০২০ সালের ডিসেম্বরে ১১ জন, ২০১৯ সালের অক্টোবরে আটজন, ২০১৮ সালের নভেম্বরে ১৭ জন, ২০১৭ সালের অক্টোবরে ১৫ জন এবং ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে ১৮ জনকে ডিআইজি পদে পদোন্নতি দেয় সরকার।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam