তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৪:১২ অপরাহ্ন

বিস্ফোরক সংকটে মধ্যপাড়া খনিতে পাথর উত্তোলন বন্ধ

  • প্রকাশ শুক্রবার, ৬ মে, ২০২২, ২.৩৭ পিএম
  • ৯৮ বার ভিউ হয়েছে

মোস্তাফিজুর রহমান বকুল, পার্বতীপুর থেকেঃ আবারও বন্ধ হয়ে গেলে দেশের একমাত্র ভূগর্ভস্থ কঠিন শিলা খনি মধ্যপাড়ার পাথর উৎপাদন। খনি ভুগর্ভে পাথর কাটার কাজে ব্যবহৃত বিস্ফোরক (এক্সফ্লোসিভ) সংকটে পড়ে দুই মাসের মধ্যে দ্বিতীয়দফা পাথর উৎপাদন বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় উৎপাদন ঠিকাদার জিটিসি। শিগগির উৎপাদন শুরুর কোন সম্ভাবনা নেই। ঈদের ছুটি শেষে গত বৃহস্পতিবার (৫ মে) উৎপাদন শুরু করার মত প্রয়োজনী বিস্ফোরক (ডেটোনেটর, কট, জেলসহ অন্যান্য বৈদ্যুতিক মালামাল) না থাকায় অনির্দিষ্টকালের জন্য শ্রমিক-কর্মচারী ছুটি দিয়ে দেয় জিটিসি। গত ৩০ এপ্রিল খনি শ্রমিকদের ঈদের ছুটি দিয়ে পাথর উৎপাদন বন্ধ করা হয়। এর আগে এ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের সংকটে পড়ে গত ১২ মার্চ উৎপাদন বন্ধ হয় এবং ২৭ মার্চ চালু হয়েছিল।
জানা গেছে, মধ্যপাড়া খনিতে বছরে ৫ থেকে ৬ কোটি টাকার এ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ও বিস্ফোরক প্রয়োজন হয়। এর পুরোটাই বিদেশ থেকে আমদানী করতে হয়।  নাম প্রকাশ না করার শর্তে দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা জানান- বিস্ফোরক আমদানীর জন্য তিনদফা দরপত্র আহবান করেও কেউ দরপত্র শিডিউল পর্যন্ত ক্রয় করেনি। তাছাড়া সরকারি নানা নিয়মনীতি মেনে আমদানী করতে দীর্ঘ প্রক্রিয়া গেলে যায়। পেট্রোবাংলার সহায়তায় ভারত থেকে বিশেষ ব্যবস্থায় বিস্ফোরক নিয়ে আসার চেস্টা চলছে বলে ওই কর্মকর্তা জানান।
এদিকে, বার বার উৎপাদন বন্ধ হওয়ায় একদিকে জিটিসি লক্ষমাত্রা অনুযায়ী পাথর উৎপাদন করতে ব্যর্থ হবে এবং বড় ধরণের লোকসানে মুখে পড়বে। অপরদিকে সরকার প্রতিমাসে মোটা অঙ্কের রাজস্ব হারাবে এবং খনিটিও আবার লোকসানের মুখে পড়বে বলে একটি সুত্র জানায়।
এ বিষয়ে মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের (এমজিএমসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এডিএম ফরিদুজ্জামানের সাথে বৃহম্পাতিবার রাত থেকে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত বার বার ফোন দিয়ে এবং ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে যোগাযোগ করার চেস্টা করা হলেও তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এমজিএমসিএল এর মহাব্যবস্থাপক (মাইন অপারেশন) মোঃ পিনাক ইকবাল পাথর উৎপাদন বন্ধ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে শুক্রবার সকালে জানান- খনির পাথর কাটার কাজে ব্যবহৃত বিস্ফোরক বিদেশ থেকে আমদানী করা হয়। বৈশি^ক নানা কারণে সময়মত তা আমদানী করা যায়নি। তবে খুব শিগগির তা নিয়ে আসা হবে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam