তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:০৪ অপরাহ্ন

ঢিলেঢালায় পোশাকেই আরাম বেশি

  • প্রকাশ সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০২২, ৬.১৪ এএম
  • ৩১ বার ভিউ হয়েছে
মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: পোশাকে বিষয়টি নিশ্চিত করতে ডিজাইনারদের চেষ্টার কমতি নেই। শিফন, সুতি, ক্রেপ, জর্জেট, সিল্ক, লিনেন, মসলিনের মতো শুধু আরামদায়ক কাপড়ই নয়, সঙ্গে জুতসই কাট ও প্যাটার্নেও মনোযোগ দিচ্ছেন তাঁরা। তবে আরামের কথা মাথায় রেখে জোর দিচ্ছেন ঢিলেঢালা প্যার্টানে। দেশীয় কিংবা পাশ্চাত্য সব পোশাকের কাটছাঁটে এই প্যার্টান বজায় রাখছেন ডিজাইনাররা। গরমের পোশাকে তরুণীদের পছন্দ ছোট হাতার লম্বা ফতুয়া, হাতাকাটা কামিজ বা ছোট হাতার শার্ট। ফতুয়া, কামিজ, ব্লাউজেও গরমে আরামের জন্য চারকোনা, পানপাতা ও ভি-আকৃতির গলার দেখা মিলছে বেশি। ফ্রক ও টপ সাধারণত ছোট মেয়েরাই বেশি পরে। তবে সেই ধারায়ও বদল এসেছে। তরুণীরাও এখন ফ্রক বা টপে সাবলীল। ফ্রকের কাটিংয়ে এমনিতেই ঢিলেভাব। তাতে কাটছাঁট ও প্যাটার্নে নতুনত্ব নিয়ে এসেছে ফ্যাশন হাউসগুলো। কোনো কোনো ফ্রকের সামনের দিকের ঝুল হাঁটু পর্যন্ত থাকলেও পেছনের ঝুল নেমে গেছে পা পর্যন্ত। ফ্রকের কোমরে ফিতার ব্যবহার, গলা ও হাতার কাজে বৈচিত্র্য এসেছে এবার। টপের ওপর থাকছে আলাদাভাবে বসানো বিভিন্ন আকৃতির কলার। টপের ডান দিকে বেশি ঝুলে গেলে বাঁ দিকটা রাখা হয়েছে ওপরের দিকে। স্লিভলেস, ম্যাগি ও ক্যাপ স্টাইল হাতায়ও এসেছে নানা পরিবর্তন।

kalerkanthoবিশ্বরঙের স্বত্বাধিকারী ও ফ্যাশন ডিজাইনার বিপ্লব সাহা জানালেন, ‘গরমে এখনকার তরুণীরা ঢিলেঢালা পোশাক পরতেই বেশি অভ্যস্ত। আমরাও পোশাকে সেই ধারা তুলে ধরেছি। পোশাকটি আবার যেন তাদের সঙ্গে মানিয়ে যায় এবং ফ্যাশনেবল হয় সে জন্য গলা ও হাতার ডিজাইনে বৈচিত্র্য আনা হয়েছে। কামিজ, টপ, কুর্তি, গাউন, কাফতানের বোতাম, ফিতায় আলাদা মনোযোগ দেওয়া হয়েছে। তরুণীরাও এমন ঢিলেঢালা পোশাক সুন্দরভাবে ক্যারি করছেন। ’
kalerkanthoতরুণীদের পোশাক ঢিলেঢালা রাখার আরেকটি কারণ, এমন পোশাকে সহজেই বাতাস চলাচল করতে পারে। গরম বা রোদে গেলে অসুবিধা পোহাতে হয় না। সহজে ঘাম শুষে নেয়, তাপ থেকে সুরক্ষা দেয়। পোশাকটিও টেকসই হয়।গরমে একটু হালকা রঙের পোশাকই বেশি আরামদায়ক। হালকা রঙের তাপ শোষণ ক্ষমতা কম। তা ছাড়া এমন রং চোখে প্রশান্তিদায়ক। প্যাস্টেল শেড যেমন ফিকে হলুদ, হালকা সোনালি, বাসন্তী, জলপাই সবুজ, বেবি পিংক, আকাশি নীল, লাইট চকোলেট এবং সাদা রঙের পোশাক এই সময়ে বেশি উপযুক্ত।
kalerkanthoআইকনিক ফ্যাশন গ্যারেজের স্বত্বাধিকারী ও ডিজাইনার তাসলিমা মলি জানালেন, ‘গরমে ছোট হাতার বা স্লিভলেস জামায় বেশি স্বস্তি পাওয়া যায়। অনেকেই আবার এমন হাতায় অভ্যস্ত নন। তাঁদের জন্য পোশাকে লম্বা হাতা রাখা হলেও ঢিলেঢালা কাটিং দেওয়া হয়েছে। হাতার ওপরের দিক একটু সরু হলেও নিচের দিকে ফাঁপা রাখা হয়েছে আরামের জন্য। এ ছাড়া পোশাকটি যেন ফ্যাশনেবল হয় এ জন্য কাঁধের দুই পাশে হাতা ফুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঢিলেঢালা কাটিংয়েও যেন তাঁদের স্মার্ট লাগে সে জন্যই পোশাকের ডিজাইনে আমাদের এমন প্রয়াস। ’ গরমে সারা দিন পরার জন্য ছোট হাতার ঢিলেঢালা টপ, ফ্রিল দেওয়া স্কার্টও বেশ চলছে। ফ্রক ও ম্যাক্সি ধাঁচের কামিজেও থাকছে এমন ধারা। পোশাকের নকশায় পশ্চিমা মোটিফ, গয়না, ফুল, লতাপাতার মোটিফ তুলে ধরেছে ফ্যাশন হাউসগুলো। ফ্লেয়ার্ড ক্রপ টপ বেশ কিছুদিন ধরে তরুণীদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়। এর কারণও আরামদায়ক কাট। দেখতে ঢিলেঢালা কিন্তু স্টাইলিশ। এসব টপের হাতার শেষে আছে বাঁধার সুবিধাও। কামিজে হাতের কাজ, রং, কাট, নকশা সবকিছু মিলিয়ে গরমের কথা ভেবে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে আরাম।
kalerkanthoকরোনার পর থেকেই পোশাকে ঢিলেঢালা ভাব বিশ্বজুড়ে। সালোয়ার-কামিজগুলোতে চলছে এই ধারা। কিছু কিছু ফ্যাশন হাউস সোজা কাটের কামিজে অতিরিক্ত ঢিলা বা ওভার সাইজ কাট নিয়ে এসেছে। ফ্রক কাটের কামিজে কুঁচি ব্যবহারে আনা হয়েছে ভিন্নতা। আনারকলির মতো ঢিলেঢালা পোশাক আগের মতোই জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছে। ঘেরেও এসেছে নানা বৈচিত্র্য। এসব পোশাকের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অবস্থান ধরে রেখেছে ঢিলেঢালা পালাজ্জো, সারারা  ও প্যান্ট। ঢিলেঢালা পোশাকের মিছিলে নতুন মাত্রা যোগ করেছে কাফতান। গরমের কারণে এখন তরুণীদের গায়ে গায়ে কাফতান। রং-নকশার পাশাপাশি অভিনব কাটও দেখা যাচ্ছে কাফতানে। লম্বা কাফতানের পাশাপাশি খাটো কাফতানও চলছে বেশ। আরাম আর ফ্যাশনেবল হওয়ায় বাড়িতে পরার পাশাপাশি ঘোরাঘুরি, দাওয়াত, বন্ধুদের আড্ডা, অফিসেও এখন মানানসই পোশাক এটি। ব্লাউজ একসময় আঁটসাঁটই দেখা যেত। এখন বদল এসেছে সেখানেও। ঢিলেঢালা ব্লাউজের সঙ্গে শাড়ি পরছেন নারীরা। হাফ ও ফুলস্লিভ ব্লাউজেও দেখা মিলছে বর্ণিল কাট ও প্যার্টান। বিশেষ করে ব্লাউজের হাতা, গলা ও পেছনে ফিতার কাটিংয়ের বৈচিত্র্য এসেছে বেশি।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam