তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৪৫ অপরাহ্ন
সদ্য সংবাদ :

সুবর্ণচরের একাধিক মামলার আসামি লাল আজাদ গ্রেপ্তার

  • প্রকাশ রবিবার, ৩ জুলাই, ২০২২, ১১.০৬ এএম
  • ২৫ বার ভিউ হয়েছে
নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর সুবর্ণচরে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণ ও মাদক মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।  গ্রেপ্তারকৃত আসামির নাম খাইরুল ইসলাম আজাদ প্রকাশ লাল আজাদ (৩৩)। সে উপজেলার ২নং চরবাটা ইউনিয়নের চরমজিদ গ্রামের জাফর উল্যাহ প্রকাশ জাফর কেরানির ছেলে। রোববার (৩ জুলাই) দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে নোয়াখালী চীফ চুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়।  এর আগে গতকাল শনিবার
বিকালে উপজেলার ২নং চরবাটা ইউনিয়নের চরমজিদ ভূঞারহাট বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশের চৌকশ একটি দল। গ্রেপ্তারকৃত লাল আজাদ বিরুদ্ধে  চরজব্বর থানার মামলা নং-০৫, তাং-১২/০৯/২০১৯খ্রিঃ ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০(সং/০৩) এর ৯(১)/৯(৪)(খ)/৩০ তৎসহ পেনাল কোড ৩২৪/৩০৭/৫০৬(২)/৩২৩ ও চরজব্বর থানার মামলা নং-১, তাং-০১/১১/২০২১খ্রিঃ ধারা-২০১৮ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ৩৬(১) এর সারণী ১০(ক)/১৯(ক)৩৮/৪১  এর ওয়ারেন্টসহ এবং চরজব্বর থানার মামলা নং-০৯, তাং-২২/০৬/২০২২খ্রিঃ ধারা-২০১৮ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ৩৬(১) এর সারণী ১০(ক) এর পলাতক আসামী নং-০১। ডিবি টিম নোয়াখালীর অভিযানে একাধিক মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামী খাইরুল আলম আজাদ প্রঃ লাল আজাদ(৩৩) করতে সক্ষম হয়।
ছাড়াও তার বিরুদ্ধে এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের নেতৃত্ব দেওয়া,জমি দখল,চাঁদাবাজি, মাদক কারবার,ধর্ষণ,সেলিম বাজার আশ্রায়ণ প্রকল্পে- মুক্তা,তানিসা আলী,লাইলী,ফেরদৌসি, বেহালী গ্যাংদের পতিতালয় গুলা প্রশাসনের এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তাদের মাসিক মাসোয়ারা দিয়ে ম্যানেজ করে সে পরিচালনা করে ,স্বর্ণ চোরাচালান,অবৈধ সিএনজি,মোটরসাইকেল চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য,হিজলা দিয়ে চাঁদাবাজি ও তার অবৈধ টাকায় সড়কে চলে তার তিনটি সিএনজি। পাহাড় সমান অভিযোগ থাকার পরও রাজনৈতিক অসাধু নেতাদের ছত্রছায়াতে বার বার সে অপরাধ করেও গ্রেফতার হয় না। সে কখনো  জামাত-বিএনপির এজেন্ট,কখনো আ,লীগের দলীয় নেতাদের সাথে সংখ্যতা তৈরি করে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী হিসিবে তার কিশোর গ্যাং নিয়ে যে কারো উপর হামলা করে। পূর্বে তার সকল অপকর্মের আশ্রায়দাতা হিসেবে ছিলো ০২নং চরবাটা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি অলি উল্ল্যাহ সওদাগর,তার ভাই নুরুল হুদা হুদু,সাবেক  ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মহি উদ্দিন মহিম। বর্তমানে সে ০২ নং চরবাটা ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রাজিবের লাল আজাদ হিসেবে এলাকায় বেশ পরিচিত ও চরবাটা ইউনিয়ন আ,লীগের সাধারণ সম্পাদক আলা উদ্দিন মিয়ার সরকারি খাস জায়গাতে অবৈধভাবে গড়ে উঠা “”হাওয়া ভবনের পাহারাদার”” হিসেবে কর্মরত।
মুক্তিযোদ্ধা কলোনীর সাবেক গরু চোর বাসুর ছোট ছেলে আলা উদ্দিনের নেতৃত্বে ইয়ারা বাণিজ্য,বাস কাউন্টার দখল,৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আলেয়া আক্তারের উপর হামলার নেতৃত্ব দেয় চক্রটি। নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম জানান,  রোববার দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। সে একাধিক মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামি ছিল।  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তাকে গ্রেপ্তার করে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam