তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:২২ পূর্বাহ্ন

উলিপুরে ঔষধ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা, আসামী গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

  • প্রকাশ বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২, ১২.৫০ পিএম
  • ৮১ বার ভিউ হয়েছে
খা‌লেক পার‌ভেজ লালু, উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের উলিপুর পৌরশহরের থানা মোড়ের ঔষধ ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন(২৬) কে প্রকাশ্য দিবালোকে চাপাতী দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন করেছেন ব্যবসায়ীরা।
বুধবার(১০ আগষ্ট) সকাল ১১টায় উলিপুর বণিক সমিতির উদ্যোগে পৌর শহরে  ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, উলিপুরে এমন প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি। আসামীকে দ্রুত গ্রেফতার করতে হবে। পুলিশ আসামী গ্রেপ্তারে ব্যর্থ হলে বৃহত্তর কর্মসুচী দেয়া হবে।
এ সময় বণিক সমিতির সদস্য লক্ষন সেনগুপ্ত’র সঞ্চালচনায় বক্তব্য রাখেন- উলিপুর বণিক সমিতির সভাপতি সৌমেন্দ্র প্রসাদ পান্ডে গবা, সাধারন সম্পাদক মাইনুল হোসেন মন্ডল দুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী, কার্যকরি সদস্য স.ম আল মামুন সবুজ, আব্দুল মান্নান, ইকবাল হোসেন চাঁদ প্রমুখ।
উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) ইমতিয়াজ কবির জানান, আসামী চিহ্নিত করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের খুঁজে পাওয়া গেছে। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আসামী গ্রেফতারে আন্তরিক চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য, গত শনিবার (৬ আগষ্ট) বিকেল সাড়ে ৫ টায় উলিপুর থানা মোড় হেলথ কেয়ার মেডিসিন কর্ণারের মালিক আলমগীর হোসেন পার্শ^বর্তী গিনি ফার্মেসিতে ঔষধ নিতে গেলে মোঃ মাসুদ ওরফে মাসুদ রানা(৩৫) পিছন থেকে চাপাতী দিয়ে এলোপাতারীভাবে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে গুরুত্বর আহত অবস্থায় আলমগীরকে উদ্ধার করে উলিপুর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় আলমগীরের স্ত্রী ফারজানা বেগম বাদী হয়ে অভিযুক্ত হায়াৎ খাঁ কুড়ার পাড় গ্রামের আসাদ আলীর পুত্র মাসুদ রানাসহ অজ্ঞাতনামীয় ২/৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ৭ তাং- ০৭/০৮/২২ইং

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam