তথ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক নিবন্ধনকৃত, যার রেজি নং-৩৬

মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন

জাগ্রত সাহিত্য সম্মাননা পেলেন মতিয়ারা মুক্তা

  • প্রকাশ সোমবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২২, ৯.৫৩ এএম
  • ১৬ বার ভিউ হয়েছে
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধাঃ দুই বাংলার সাহিত্য অঙ্গনে বিশেষ অবদান ও শ্রেষ্ঠ সংগঠকের জন্য জাগ্রত সাহিত্য সম্মাননা পেলেন মাটির মা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও তরুণ প্রজন্মের প্রতিভাবান লেখিকা মতিয়ারা মুক্তা। জাগ্রত সাহিত্য পরিষদ বাংলাদেশের আয়োজনে ১২ নভেম্বর শনিবার সকাল এগারটায় ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে সম্মাননা প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তাকে এ সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড হিউম্যান কালচারের প্রেসিডেন্ট প্রাকৃতজ শামীম রুমি টিটন, স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাগ্রত সাহিত্য পরিষদের আহ্বায়ক দেশবরেণ্য ছড়াকার আতিক হেলাল, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জাগ্রত ব্যবসায়ী ও জনতা বাংলাদেশের চেয়ারম্যান শিহাব রিফাত আলমসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাটির মা ফাউন্ডেশনের ঢাকা কমিটির শামীম পারভেজ, তাজুল ইসলাম, কামরুল হাসান শিকদার, মিলন আহমেদ, রফিক রাজ, বদরুল আহসান খান, সারোয়ার মাহিন, তাহেরা খাতুন, সামছুন্নাহার রুবাইয়া, তন্ময় খান , জামান মনির , সাফিন আহমেদ, তানিম বিন সিদ্দিকী, মাহবুব প্রমুখ।
জানা যায়, মতিয়ারা মুক্তা সাহিত্যাঙ্গনে ‘মাটির মা’ নামেই অধিক পরিচিত। মাটির মা একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। এ সংগঠনের সভাপতি ও চেয়ারম্যান তিনি। তাকে দেশবিদেশের কবি, সাংবাদিক, সংগঠক ও পাঠক মহল মায়ের আসনে বসিয়ে সাহিত্য সংস্কৃতি ও মানবিক কাজগুলো শেয়ার করে থাকেন। তার প্রকাশিত মাটির মা কাব্যগ্রন্থ। সেই সাথে ৭ টি বই প্রকাশিত। যৌথ ভাবে প্রকাশিত ৮৫ টি কাব্যগ্রন্থ। তার সম্পাদিত মাটির মা সাহিত্য পত্রিকা মাসিক ‘মায়ের ঘর’ প্রিন্ট পত্রিকাটি দেশবিদেশের কবিদের লেখায় সমৃদ্ধ। তার দৈনিক অনলাইন কবিতা প্রতিযোগীতা লেখক সাংবাদিকদের কাছে জনপ্রিয়। সাপ্তাহিক টকশো, দৈনিক কবিতা প্রতিযোগীতা, পাক্ষিক কবিতা পাঠের আসর, মাসিক স্বরচিত কবিতা পাঠের আসর, মাসিক গানের আসর, ত্রৈমাসিক সাহিত্য আসর এবং তার বাড়িতে প্রতিবছর মার্চের ১০,১১ ও ১২ তারিখে আন্তর্জাতিক কবি মিলন মেলা কবিতা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘মায়ের ঘর’ অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে দেশবিদেশের কবি,সাংবাদিক, সংগঠক, শিল্পী ও সর্বস্তরের জনসাধারণ অংশগ্রহণ করে। এটি একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। এখান থেকে যে যে কার্যক্রমগুলো পরিচালিত হচ্ছে। তা হল-মাটির মা ফাউন্ডেশন স্বেচ্ছাসেবী ব্লাডগ্রুপ, মায়ের ঘর নামক মাসিক সাহিত্য আসর, পাবলিক লাইব্রেরি, লাইভ টকশো, মহিলা মাদরাসা, বাৎসরিক ম্যাগাজিন, ফেইসবুক গ্রুপ, বাৎসরিক তিনদিন ব্যাপী (১০,১১,১২- ই মার্চ) আন্তর্জাতিক কবি মিলন মেলা কবিতা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মায়ের ঘর, বাৎসরিক ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, শীতার্তদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ, বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ, অসহায় প্রাপ্ত বয়স্ক ছেলেমেয়েদের বিয়ে দেয়া এবং সার্বিক সহযোগিতা করা, দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় সহযোগিতা করা, কবিতা প্রতিযোগীতার আয়োজন করা (সাধারণ গ্রন্থাগার টাঙ্গাইল, শালিয়াবহ চৌরাস্তা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান)। এ ছাড়াও অসংখ্য অনাথ এতিম সন্তানদের মা হয়ে পাশে থাকাসহ অসুস্থ, অসচ্ছল মানুষদের নিজ বাসায় এনে চিকিৎসা সেবা প্রদান , অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত মানুষদের সমাজ ও পরিবারের ফিরিয়ে দেন তিনি। সেবা ও ভালোবাসার মাধ্যমে মাটির মা নামটি সাহিত্য সংস্কৃতি ও মানবিক সমাজে আজ অতি পরিচিত। লেখক পাঠক সমাজে তার কদর সমৃদ্ধ ও সুশ্রী।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Muktinews24.com © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.muktinews24.com কর্তৃক সংরক্ষিত.
Technical Support Moinul Islam